May 6, 2021, 3:59 am

News Headline :
সুজানগর মনিরুল উলুম দাখিল মাদ্রাসায় এতিমদের সাথে ইফতার মাহফিল বাচ্চা নিয়ে মার্কেটে যাওয়ায় ১২ মা-বাবাকে জরিমানা চাটখিলে একাধিক মামলার আসামী ও তার সহযোগী মাদকসহ আটক। ফরিদগঞ্জে মাদ্রাসায় পড়ুয়া  এক  কিশোরীর আত্মহত্যা বারদী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের ৫ শত পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ করেন দাইয়ান মেম্বার। সোনাগাজীর মজলিশপুরে সেচ্ছাসেবক লীগের কার্যালয় উদ্বোধন ও ইফতার বিতরণ। হাতিয়ায় সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসীর হামলা। শ্রীনগর ষোলঘরে নগদ অর্থ বিতরণ ঘোড়াশালে রেমিট্যান্স যোদ্ধা হারুনের পক্ষে ইফতার বিতরণ বেলাবতে মরহুম হাজী আঃ বাতেন ভূইয়া স্মৃতি সংসদের পক্ষ হতে ইফতার ও দোআ মাহফিল অনুষ্ঠিত

আগুনে ৩টি বসতঘর পুড়ে ছাই ! প্রায় ৮ লক্ষ টাকার ক্ষতি

সূজন পোদ্দারঃ
কচুয়া উপজেলায় ৩টি বসতঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের দরিয়া হয়াতপুর গ্রামের মোঃ মানিক হোসেন, মোঃ রুবেল হোসেন ও তোফায়েল হোসেনের বসতঘরে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস আসার আগেই স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলেও ততক্ষনে তিনটি পরিবারের বসতঘর ও রান্নাঘর সহ ৩টি ঘরের ভেতরে থাকা আসবাবপত্র, কাপড়-চোপড়সহ সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
এতে নগদ ৬৫ হাজার টাকা সহ প্রায় ৮ লাখ টাকার টাকার ক্ষতি হয় বলে দাবী করা হয়েছে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্র পাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন স্থানীয়রা।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৯টায় মোঃ মানিক মিয়ার ঘর থেকে দ্রæত আগুন জ্বলে ওঠে। পরে স্থানীয় মেম্বার মোঃ মানিক মিয়া কচুয়া ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। তবে ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট আসার আগেই স্থানীয়রা আগুন নিভিয়ে ফেললেও ততক্ষনে ভয়াবহ আগুনের লেলিহানে মোঃ মানিক হোসেন, মোঃ রুবেল হোসেন ও তোফায়েল হোসেনের সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
ক্ষতিগ্রস্ত মোঃ রুবেল জানান, হঠাৎ আমার বড় ভাই মানিকের ঘরের ভিতরে আলো দেখতে পেয়ে আমি জীবন রক্ষার্থে ঘর থেকে বের হয়ে পড়ি। মুহুর্তের মধ্যে মানিকের ঘর থেকে আশেপাশের ঘর আগুনে জ্বলতে শুরু করে। আগুন ছড়িয়ে পড়ায় ঘরের কোন জিনিসপত্র সরাতে পারিনি। এতে মানিক মিয়ার সহ আমার ও তোফায়েলের ৩টি বসতঘর পুঁড়ে যায়।
তিনি আরো জানান, স্থানীয় এনজিও থেকে রিক্সা কিনার জন্য ৬৫হাজার টাকা কিস্তি উঠিয়ে আমার ঘরে রাখি। এখন আমি সর্বশান্ত। স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে এখন আমার মাথা গোঁজার স্থান নেই।
ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে মুহুর্তের মধ্যে মোঃ মানিক হোসেন, মোঃ রুবেল হোসেন ও তোফায়েল হোসেনের সাজানো সংসারের সব পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন-যাপন করছে দিনমজুর পরিবারটি।
খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপায়ন দাস শুভ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে স্থানীয় এমপি ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের নির্দেশে তিনটি পরিবারকে এক ভান টিন সহ নগদ ৬ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়।
এসময় তাঁর সাথে ছিলেন- স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আহসান হাবীব জুয়েল, ইউপি সদস্য মোঃ মানিক, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!