May 9, 2021, 5:19 am

News Headline :
ফেনীর দাগনভূঁঞায় সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে “নিজের বলার মতো একটা গল্প” ফাউন্ডেশনের ইফতার সামগ্রী বিতরণ সিংড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী সুলতানের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বাগেরহাটে টিকটক ও লাইকি করা নিয়ে কলহের জেরে স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ স্বামীর দর্শনায় মাদক ব্যবসায়ীকে আটকের সময় পুলিশের ওপর হামলা, আহত ৪ পুলিশ সদস্য কুয়েতের দীর্ঘ ৩৫ বছরের প্রবাস জীবনের সমাপ্তি বীর মুক্তিযোদ্ধা রেদোয়ানকে মীরসরাই বাসীর সংবর্ধনা পুরান বাজারে তরুণ সমাজসেবকের ঈদ সামগ্রী বিতরণ ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের মেয়াদ আরো ১৪ দিন বাড়ল ভাই ভাই স্পোর্টিং ক্লাবের নতুন কমিটি, সভাপতি সেলিম খান সিনিঃ সহসভাপতি আলী মাঝি ও সেক্রেটারি বাদল খান। নোয়াখালীর চাটখিল-সোনাইমুড়িতে ঈদ উপহার পেল ২৫ হাজার অসহায় পরিবার। রায়পুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আয়োজনে পথচারীদের ইফতার বিতরণ

কালীগঞ্জে সূর্য মুখী ফুলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে দর্শনার্থীদের ভীড়

বিল্লাল হোসেন, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ঃ ফাল্গুনের ছন্দে বাতাসকে বিদায় দিয়ে এসেছে বসন্তকাল। গাছে গাছে সুবজ পাতার সমারোহ আমগাছে বোলের কুঁড়ি উঁকি-ঝুকি দিয়ে বিকশিত হচ্ছে। সূর্যেকে দেখে বিরামহীন হাসতে শুরু করেছে গাজীপুরের কালীগঞ্জের র্দূবাটি গ্রামের জসিম উদ্দিন এর প্রদর্শনির বাগানের সূর্যমুখী ফুলগুলো।
 এ হাসি যেন থামছেনা বাগানের মৃদুবাতাসে কেবল দোলছে আর হাসছে। সূর্য মুখী ফুলের দোলায় সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে দর্শনার্থীদের আগমনে মুখরীত হয়ে উঠছে সমগ্র এলাকা।
গতকাল  বিকেলে গাজীপুর জেলার কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের দূর্বাটি গ্রামের ওই বাগানে গিয়ে জানা যায়, নিজস্ব ১ বিঘা জমির ওপর পরীক্ষামূলক ভাবে গড়ে তুলেছেন এই সূর্যমুখী ফুলের বাগানটি। মূলত: সূর্যমুখী ফুল থেকে তেল আহরনের জন্য এই বাগানটি।
 জসিম উদ্দিন বকুল দুর্বাটি গ্রামের প্রয়াত চট্রগ্রামের একটি টি স্ট্রেটের ম্যানেজার মেজবাহ উদ্দিনের ছেলে, তিনি পিতার সাথে অবস্থানের কারনে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্সে লেখা পড়া শেষ করে ঢাকাতে এক বিদেশী এয়ারলাইনস কোম্পানিতে চাকুরী করছেন। পাশাপাশি বাগানটির প্রতিষ্ঠা করেন। বাণিজ্যিকভাবে তৈল উৎপাদনের জন্য ঢাকা থেকে অধিকাংস সময় ও ছুটির দিনে এখানেই কাটান। তিনি সূর্য মুখী চাষের পাশাপাশি অনান্য আধূনিক ফসলও চাষবাস করছেন।
যেমন- রক মিলান, (বাঙ্গী জাতীয় ফল) হলুদ জাতের তরমুজ, বারী-৬ মুগডাল, ব্রী-৯২ ধান, মাল্টা, কমলা, লেবু, লতিরাজ কচু ইত্যাদি। তিনি কৃষিকে যাস্ত্রীকিকরন ও আধুনিক পধ্বতিতে চাষ করছেন। তিনি কোরিয়া থেকে মালচিং ফ্লিম ক্রয় করে ও কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের পরামর্শক্রমে আধুনিক চাষ পধ্বতি চালু করছেন। তিনি আরো বলেন, মাটির ওপর যে তাপ পরিবাহী মালচিং ফ্লিম রয়েছে তা মাটির নিচের তাপকে নিয়ন্ত্রনে রাখবে। এখানে কোন মুজুর লাকবেনা তিন মাস পর বাঙ্গী জাতীয় ফল রক মিলান ও হলুদ জাতের তরমুজ পবেন।
সূর্য মুখী চাষের সময় সীমা মাত্র ৩মাস, এরই মধ্যে ফুলের বীচ থেকে তেল উৎপাদন করা সম্ভব হবে। সূর্য মুখী চাষে মোট ব্যায় হয়েছে ৫-৬ হাজার টাকা, তিনি আশা করেন এই ফুল চাষ করে প্রায় ৬০-৭০ হাজার টাকা লাভবান হবেন। পরিকল্পিত ভাবে যেকোন কাজ করলে সব কাজেই সফলতা আসবে।
অন্যদিকে বিকেল বেলায় এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে দল বেঁধে সুন্দর পীপাষু ও পর্যটকরা বাগানের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে এসে আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে উপভোগ করেন বাগানের অপার সৌন্দর্য্য, দলে দলে ছবি তুলতে দেখা যায়, কেউবা সেলফী তুলছে এ ছাড়া কালীগঞ্জ শ্রমিক কলেজ সংলগ্ন গড়ে উঠেছে আরো একটি বাগান, সড়কের পাশে থাকায় দিনভর পর্যটকদের ভির জমাতে দেখা যায়

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!