April 11, 2021, 7:31 am

News Headline :
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে করোনা আক্রান্ত খালেদা জিয়া কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে স্কুলভবনের নির্মাণকাজ নিম্নমানের হওয়ায় কাজ বন্ধ হবিগঞ্জ-১ আসনের এমপি শাহনওয়াজ’র সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল বিশুদ্ধ পানির সংকটে ১০দিনে হাসপাতালে অর্ধশতাধিক রোগী নোয়াখালীতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ আক্রান্ত ৮৪ জন সকলের মাঝে বাঁচার আকুতি শফিকুলের রাণীনগরে স্বামী পছন্দ না হওয়ায় নব-বধুর আত্মহত্যা! মতলব উত্তরে হাজী রব মোল্লা ফাউন্ডেশনের ইফতার সামগ্রী বিতরণ জনসাধারণের মাঝে চাঁদপুর ট্রাফিক বিভাগের মাস্ক বিতরণ অব্যাহত মানুষ যদি সচেতন না হয় চিকিৎসক দিয়ে করোনা নির্মুল করা সম্ভব নয় – হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

চাঁদপুরের পুরান বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়েই চলছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ
করোনা মহামারীতে চলছে জেলায় জেলায় লক ডাউন। কর্মহীন হয়ে অসহায় অবস্থায় কর্মক্ষম মানুষগুলো আজ ঘরবন্দি। অভাব আর দারিদ্র্যের কশাঘাতে আজকের জনজীবন দুঃখ ও হাহাকারে পূর্ণ। মানুষের ওপর চেপে বসেছে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ঘোটক। জীবন ধারণের উপযোগী প্রতিটি জিনিসের অগ্নিমূল্য। চাল, ডাল, মাছ, মাংস, তেল, তরিতরকারি, ফলমূল, চিনি, লবণ, গম, আটা, রুটি, বিস্কুট ইত্যাদি দ্রব্যের মূল্য আগের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষ বিশেষ করে খেটে খাওয়া মেহনতি মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। অতিরিক্ত মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের জন্যই সাধারণ মানুষকে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।স্বাধীন দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের বলগাছাড়া অবস্থা দরিদ্র ব্যক্তিদের পক্ষে বজ্রাঘাততুল্য। বিভিন্ন শ্রেণীর ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি করছেন। তারই প্রভাব চাঁদপুরের ব্যবসায়ী কেন্দ্র পুরান বাজারেও।

পুরান বজারে আজকের বাজার দরঃ
পেয়াজ ৫৫ টাকা – রসুন ১৩০ টাকা – আঁধা ২৫০ টাকা – তেল ১০০ টাকা – চিনি ৬৫ টাকা – ডাইল ১০০- টাকা আলু ২২ টাকা, চাউলে বেড়েছে কেজিতে ১০-১২ টাকা, মুড়ি বেড়েছে কেজি প্রতি ১৫-২০ টাকা।

রমজানকে সামনে রেখে পুরান বাজারের সিণ্ডিকেট ব্যবসায়ীরা চাল ডাল মুড়ি আদা রসুন পেয়াজ পর্যাপ্ত পরিমান গুদামজাত করে দাম বাড়িয়ে মানুষের পকেট কাটলেও দেখার কেউ নেই। চাঁদপুরের ব্যবসায়ীক সংগঠন চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স পুরান বাজারেই অবস্থিত। কিন্তু সাধারন মানুষের দাবী চেম্বার অফ কমার্সের পক্ষ থেকে এবং প্রশাসনের সঠিক তদারকি থাকলে ব্যবসায়ীরা দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি করতে পারতো না। তাই পুরান বাজারবাসীর দাবী চেম্বার অফ কমার্স সহ প্রশাসনের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করেন সাধারন মানুষকে রক্ষা করে।

এ বিষয়ে চেম্বারের সহ সভাপতি তমাল কুমার ঘোষের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করে জানা যায়, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের সংকট প্রতিরোধে চাঁদপুর চেম্বার অফ কমার্স প্রতি নিয়ত ব্যবসায়ী ও প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গুলোকে সামাজিক দূরত্ব রেখে খোলা রাখার ব্যবস্থা করেন। যার ফলে চাঁদপুর সহ বৃহত্তর নোয়াখালী জেলায় নিত্য প্রয়েজনীয় দ্রব্যের সংকট দেখা দিচ্ছেনা।
দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি রোধে প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে। পরিবহন ব্যবস্থার বিভিন্ন সমস্যার কারনে ও মোকামে দাম বৃদ্ধির ফলে হয়তো দ্রব্যমূল্য কিছু বাড়তে পারে।
সবাই ঘরে ও নিরাপদে থাকার অনুরোধ জানান এই ব্যবসায় নেতা।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!