September 23, 2021, 2:05 am

News Headline :
নোয়াখালী জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত নোয়াখালীতে ইয়াবাসহ পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার কোম্পানীগঞ্জে ইয়াবাসহ ২ মাদক কারবারি আটক নৌকার পক্ষে ভোট করায় হামলার অভিযোগ, আহত-৫ চাটখিলে টাকা হারালেন অবসর প্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে টাকা ছিনতাইকালে গ্রেফতার-২ দিনাজপুরে ব্লক ও বাটিক প্রিন্টিং প্রশিক্ষন কোর্সের উদ্বোধন দিনাজপুরে নিউজ নেটওয়ার্কের প্রশিক্ষণ কর্মশালা সমাপ্ত দিনাজপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের তদন্ত শুরু দিনাজপুরে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভবনের লিফট ও জেলা লিগ্যাল এইড অফিসে মাতৃদুগ্ধ পান কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন

নকলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ও প্রতিরোধে কমিটি গঠন এবং করোনা বিষয়ে আলোচনা

মানিক মিয়া, নকলা (শেরপুর) প্রতিনিধি : শেরপুরের নকলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ও প্রতিরোধসহ সার্বিক ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন ও করোনা বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ জুন বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমানের অফিস কক্ষে সামাজিক দুরত্ব মেনে ওই কমিটি গঠন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কৃষিমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি, আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, শেরপুর – ২ (নকলা-নালিতাবাড়ি) আসনের সাংসদ, সাবেক কৃষিমন্ত্রী, বাংলার অগ্নিকন্যা বেগম মতিয়া চৌধুরীকে প্রধান উপদেষ্টা ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ মোঃ বোরহান উদ্দিনকে উপদেষ্টা এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমানকে সভাপতি ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মজিবর রহমানকে সদস্য সচিব করে ১২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আবুল খায়ের মোঃ আনিছুর রহমান, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সুমাইয়া খাতুন সোমা, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন শাহ, শিক্ষা কর্মকর্তা ফজিলাতুন নেছা, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম ও সমাজসেবা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মজিবর রহমান উপজেলার সার্বিক করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বক্তব্য রাখেন। তিনি জানান, এ পর্যন্ত উপজেলায় মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৫৭০ জনের, রিপোর্ট পাওয়া গেছে ৫৬৬ জনের। তার মধ্যে ৪১ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এদের মধ্যে নকলা পৌরসভায় ১৯ জন, গণপদ্দি ইউনিয়নে ০২ জন, উরফা ইউনিয়নে ০৫ জন, গৌড়দ্বার ইউনিয়নে ০২ জন, বানেশ্বর্দী ইউনিয়নে ০১ জন, পাঠাকাটা ইউনিয়নে ০৬ জন, টালকি ইউনিয়নে ০১ জন, চর অষ্টধর ইউনিয়নে ০৪ জন ও চন্দ্রকোনা ইউনিয়নে ০১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ্য হয়েছে ২১ জন, মারা গেছে ০১ জন, চিকিৎসাধীন ১৯ জন। তার মধ্যে বাড়িতে চিকিৎসাধীন আছে ১৮ জন ও হাসপাতালে ০১ জন। তিনি আরো জানান, উপজেলার ০১টি পৌরসভা ও ০৯টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধুমাত্র নকলা ইউনিয়নে এখন পর্যন্ত কোনো করোনা রোগীর সন্ধান পাওয়া যায় নি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ, সরকারি হাজী জালমামুদ কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ লুৎফর রহমান, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন শাহ, নকলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন আহমেদ, ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধি নেকতার আলী প্রমুখ। উপজেলায় করোনা পরিস্থিতি অবনতির দিকে যাওয়ায় বক্তাগণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমানকে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের তাগিদ দেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রতিদিন বিকেল ০৪টা থেকে ভোর ০৬টা পর্যন্ত শুধু ঔষধের দোকান ব্যতীত নকলা পৌরশহরে সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ এবং মাস্ক ব্যবহারে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে সকল সচেতন মহলের সহযোগিতা কামনা করেন এবং আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জেল জরিমানা করা হবে বলেও জানান। ওই সময় সহকারি কমিশনার (ভূমি) তাহমিনা তারিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মকবুল হোসেন, যুবলীগের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম সোহেল, ব্যাবসায়ীদের প্রতিনিধি এবং স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!