June 22, 2021, 7:12 pm

পলাশে করোনা সংক্রমণ এড়াতে খোলা মাঠে বাজার

 

সাব্বির হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে আরও একটি বাজার নরসিংদীর পলাশ উপজেলার সকাল সন্ধা সুপার মার্কেট থেকে খোলা মাঠে স্থানান্তর করা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কেনাকাটার জন্য ঘোড়াশাল পৌর প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে পলাশ ওয়াপদা গেটের সকাল সন্ধা সুপার মার্কেট সমবায় আদর্শ বিদ্যা নিকেতন মাঠে স্থানান্তর করা হয়। করোনা মহামারী শেষ না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত এই বাজার বসবে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় স্থানান্তরিত বাজারে দোকান স্থাপনের পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিরাপদ দূরত্ব মেনে ক্রেতারা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করছেন। কথা হয় বাজার করতে আসা সামসুল হক নামে এক ক্রেতার সাথে। তিনি জানান, করোনা প্রতিরোধ ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণে এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। ধন্যবাদ জানাই ঘোড়াশাল পৌরসভা, উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে।

পলাশ সুপার সন্ধা সুপার মার্কেটের পাইকারি ব্যবসায়ী সাব্বির জানান, এ বাজার খোলা মাঠে স্থানান্তর করায় করোনা ঝুঁকি অনেকটাই কমে গেছে। আজ প্রথম বাজার বসলো এখানে। যারা বাজার করতে আসছেন তারা নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করেছেন। ক্রেতার উপস্থিতিও ছিল ভালো।

বাজার কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জুলহাস মিয়া বলেন, করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করতে এ বাজার খোলা মাঠে স্থানান্তর করা হয়েছে। আমি সার্বক্ষনিক বাজার মনিটরিং করছি। সবাইকে সামাজিক দূরত্ব মেনে বাজার করতে আহ্বান করা হচ্ছে।

ঘোড়াশাল পৌর মেয়র আলহাজ্ব শরীফুল হক এ বাজার পরিদর্শনকালে বলেন, দেশের এই কঠিন পরিস্থিতিতে নিরাপদ ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতে সবাই মিলে খোলা মাঠে বাজার স্থানান্তরিত করেছি। বাজার কমিটিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তারা যেন এই বিষয়গুলো বিবেচনা করে তা নিশ্চিত করে। ঘোড়াশাল পৌরসভার পক্ষ থেকেও এই বাজারসহ আরও দুটি বাজার মনিটরিং অব্যাহত থাকবে। আমরা পৌরবাসীকে আহ্বান করবো তারা যেন নিয়ম মেনে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করে।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!