June 22, 2021, 7:13 pm

প্রবাসীর ফোন পেয়ে তার গ্রামের বাড়ীতে খাদ্য নিয়ে হাজির ওসি ও এএসআই

[শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত]
রাত্রী ০৯ঃ৫৯ মিনিটে কুয়েত প্রবাসী নাজু নামের এক মহিলা পীরগাছা থানার অফিসার্স ইনর্চাজ এর ব্যাবহৃত সরকারী নাম্বারে রিং করে জানান তিনি কুয়েত প্রবাসী। বৈশ্বিক এই মহামারীতে গত ৩ মাস যাবত তিনি কুয়েতে বেকার জীবন যাপন করছেন। যার কারনে পীরগাছা থানাধীন অনন্তরাম সরকারটারী নিজ বাড়ীতে কোন টাকা পয়সা দিতে পারেন নি।

বাড়ীতে তার মাষ্টার্স পাশ করা বেকার ছেলে রেজোয়ান, মেয়ে নাসিমা সহ তার জামাই, কারমাইকেল কলেজে অর্নাস এ পড়ুয়া ছেলে মাসুম এবং বৃদ্ধা মা রহিয়াছে। তিনি গত ১৬ বছর যাবত স্বামী পরিত্যক্তা ফলে পুরো পরিবারে খরচ তাকে কুয়েত থেকেই পাঠাতে হয় বরতমান অবস্থার প্রেক্ষিতে টাকা পাঠাতে না পাড়ায় তারা এক রখম না খেয়ে দিনযাপন করতেছে।

এই কথা শোনার সাথে সাথেই পীরগাছা থানা অফিসাস ইনচার্জ ওসি মোঃ রেজাউল করিম রাত্রী অধীক হওয়ার কারনে দোকান পাঠ খোলা না থাকার কারনে তার বাসায় নিজের বাজার থেকে ও এ এস আই মাসুদের সহযোগীতায় উক্ত নাজুর বাসায় রাত্রী ১১ঃ০০ ঘটিকায় বাজার পৌছে দেন। বাজার পেয়ে তারা অশ্রু সিক্ত নয়নে গ্রহন করে ও রংপুর জেলার পুলিশ সহ গোটা বাহিনী কে ধন্যবাদ প্রদান করে।

পীরগাছা থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, আমরা দেশের এই ক্রান্তি লগ্নে নিজের বিবেক ও সরকারী দ্বায়িত্ব বোধ কাধে নিয়ে সব সময় কাজ করে যাচ্ছি ও যাবো।যদিও বা ত্রান দেওয়ার বিষয় টা পুলিশের না কিন্তু সমাজের তারাও তো আমার পরিবারের সদস্যদের মত তারা না খেয়ে থাকলে আমি অই থানার ওসি হিসেবে কি করে খাই?

এ সময় তিনি আরো বলেন, করোনা সংক্রামন রোধে স্বাস্থ্য বিভাগ ও সরকারী নির্দেশনা মেনে চলতে সকলের প্রতি আহবান জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!