April 20, 2021, 8:19 am

News Headline :
চাঁদপুরে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে শোকের মাতম: তাহমিনা হারুন আর নেই! ভারতে ১৮ বছর হলেই নেওয়া যাবে করোনার টিকা পলাশে পথচারীদের মাঝে স্বপ্নপূরণ সংঘ’র ইফতার বিতরণ হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতারের প্রতিবাদে কচুয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে হামলা-ভাংচুর ॥ গ্রেফতার ৩ চাপদিয়ে ঋণ আদায়ের অপরাধে জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনকে জরিমানা মেহেদীর রং মোছার আগেই নববধূর আত্মহত্যা হেফাজত নেতাকর্মীদের হামলায় ওসিসহ ৭ পুলিশ আহত চাঁদপুরে যেভাবে করোনা ল্যাব এবং সেন্ট্রাল অক্সিজেন হয়ে গেছে, সেভাবে আইসিইউও হয়ে যাবে ————————-ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু ময়মনসিংহের ত্রিশালে মোবাইল কোর্টের জরিমানা রাণীনগরে ড্রামে ভাসমান লাশ

বিভিন্ন আইডির পাসওয়ার্ড চুরি ও প্রতিষ্ঠানের নামে মিথ্যাচার, প্রোপাগান্ডা ছরানোর অপরাধে কাজী টিভির ২ জনকে বিহিষ্কার।।

ডেস্ক নিউজ:: বাংলাদেশ থেকে সম্প্রচারিত দ্বিতীয় প্রযন্মের আধুনিক ইন্টারনেট ভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল কাজী টিভি এইচডির জি-মেইল, ফেসবুক,কম্পানীর ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের ফেসবুক,জি-মেইল আইডির পাসাওয়ার্ড চুরি, অফিসের কাগজপত্র সরানো, কম্পানীর সদস্যর নামে মিথ্যাচার, প্রোপাগান্ডা,ছড়ানোর অপরাধে ২ জনকে বিহিষ্কার করেছে কম্পানীটির মালিক পক্ষ।

এবিষয় কাজী টিভি”র ব্যাবস্থাপনা পরিচালক বলেন,গত ৪ মাস পূর্বে আমার প্রতিষ্ঠানের ইন্টারনেট ও ভিডিও এডিটিং কাজের জন্য লোক খোঁজ করলে আমার পূর্ব পরিচিত মোঃ লোকমান মৃধা আমার অফিসে যাতায়েত শুরু করে তাকে বিষয়টি বললে সে আগ্রহ প্রকাশ করেন এক প্রযায় তাকে কাজী টিভিতে ম্যানিজিং ডিরেক্টর হিসাবে নিয়োগ করা হয়। তারপর লোকমান বিভিন্ন ভাবে অফিসের ডেকারেসনের জন্য উপদেষ্টা নিয়োগ করেন এবং কিছু আসবাবপত্র আনেন, আরো কিছু লোক নিয়োগ করেন বিভিন্ন পোষ্টে যাদের আমি বা কাজী টিভি নিজ অর্থায়নে পরিচয়পত্র, লোগো প্রদান করি, এক পর্যায় তার লোকবল বাড়ায় সে কাজী টিভিতে শেয়ার পার্টনার হতে আগ্রহ প্রকাশ করে এবং নানান ভাবে চাপ দিলে আমি বা আমরা এটা ভিন্ন ভাবে দেখতে শুরু করি সে এটা বুঝতে পেরে অফিসে নিয়মিত নানান প্রকার জটিলতা সৃষ্টি করে এবং বাহিরের লোক দ্বারা অফিসের নামে নানা ধরনের প্রোপাগান্ডা চালায় যা আমার এবং প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানের কান পর্যন্ত পৌছায় পরে উক্ত প্রোপাগান্ডার কিছু আলামত সংগ্রহ করা হয়। এটা সে বুঝতে পেরে প্রায় সময় কাজী টিভির ফেসবুক ও জিমেলের পাসওয়ার্ড চেইন্জ করে এবং তার বিতর থাকা ডকুমেন্ট হাতিয়ে নিতে চেষ্টা করিলে তা ব্যার্থ হয়।এতে করে তার সাথে আমার বাকবিতর্ক হয়।এর পর সর্বশেষ গত ২৪ তারিখ পটুয়াখালী সার্কেল এসপি মহাদয় আমাকে আমার ব্যাক্তিগত কাজে সরণ করেলে সেখানে কিছুটা জটিলতা দেখাদেয় আমি অনেকটা সময় উক্ত স্থানে পার করিলে আমার সহকর্মীরা উক্ত স্থানে উপস্থিত হয় এবং ঢাকা থেকে একাধিক সাংবাদিক নেতা,সম্পাদক বিষয়টি অামলে নেন এবং পরবর্তীতে উক্ত বিষয়ে আমি সম্পৃক্ত না থাকায় এসপি মহাদয় আমাকে যেতে বলেন,কিন্তু উক্ত বিষয়টি কে কেন্দ্র করে লোকমান ও লোকমানের নিয়োগকৃত তওহিদ যার বিরুদ্বে মার্ডার মামলার আসামী হওয়ার তথ্য পাওয়া গেলে তাকে বিহিষ্কার করে নোটিশ প্রদান করতে বলা হয় এবং কাজী টিভির গুরুপ আইডি থেকে রিমুভ করা হয় সেই তওহিদকে নিয়ে লোকমান একটি মিথ্যা ভিত্তিহীন গল্প তওহিদের ফেসবুক আইডিতে প্রচার করে আমাকে সমাজে হেয়ো করলে আমি উক্ত বিষয়টি আমাদের প্রতিষ্ঠানের ম্যানিজিং ডিরেক্টর এর কাছে জানতে চাইলে সে উল্ট আমাকে নানান ধরনের বাঝে ভাষায় কথা বলে এবং তারপর প্রায় আনুমানিক ১ থেকে দেরঘন্টা পরে রাতে আমার অফিসে বসেই তওহিদ ও বহিরাগত ২জনকে নিয়ে নতুন মিথ্যা গল্পর রচনা করে আমাকে ও প্রতিষ্ঠানের নামে মিথ্যাচার করে লোকমান।

এবিষয় কাজী টিভির চেয়ারম্যান মোর্শেদা খানম লিমা বলেন কাজী টিভি আমাদের যৌথ মালিকানা প্রতিষ্ঠান আমি পরিবারের কাজে ব্যস্ত থাকায় আমার স্বামী মোঃ মামুন মহা-ব্যাবস্থাপনা পরিচালক হিসাবে উক্ত প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন তারই ধারাবাহিকতায় কাজী টিভির অনলাইন ও ভিডিও এডিটিং এর কাজের জন্য ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের পূর্ব পরিচিত হওয়ায় মোঃলোকমান কে নিয়োগ করা হলে সে কয়েক মাসের মধ্যে নিজেকে বিশ্বাসী করে তুলে পরে সে প্রতিষ্ঠানের শেয়ার চায় তা না দিলে সে একের পর এক সন্ধেহ মূলক কার্যকম করে, পরে সর্বশেষ কয় একদিন আগে কাজী টিভির ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের নামে মিথ্যাচার,কম্পনীর সকল ব্যাবসায়ীক আইডির পাসাওয়ার্ড, চুরি করে নানান ধরনের প্রোপাগান্ডা চালায় এমত অবস্থায় তাৎক্ষণিক ভাবে আমি ও কাজী টিভির সিনিয়র উপদেষ্টা মোঃখাইরুল আলম রফিক এবং ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের সিদ্বান্তে তাকে বিহিষ্কার করি,পরে আমার ও কাজী টিভি পরিবারের সকল সদস্যর শুরক্ষায় থানায় ডায়রী করি যার ডায়ারী নং ১০১৫ ।

কাজী টিভিতে লোকমান প্রায় ৪ মাসের মতন কাজ করেছে এই চার মাসে সে কি আপনাদের কাছে কোন টাকা পয়শা পাবেন কিনা বা পেলে তা দিবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ব্যাবস্থাপনা পরিচালক মামুন বলেন যেহেতু তার সাথে আমাদের কোন টাকা পয়শার চুক্তি নেই তাই এর কোন বাধ্যবাধকতাও নেই তারপরও সে যদি কোন কিছুতে এরকম লিগেল কাগজ পত্র দেখায় তাহলে অবশ্যই আমি বা আমার প্রতিষ্ঠান তা দিয়ে দিবো।

তবে আমরা তথ্য পেয়েছি যে লোকমান বিভিন্ন যায়গা থেকে কিছু আসবাবপত্র অফিসে এনেছে তাহলে সে গুলো কি হবে?

দেখুন কাজী টিভি একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এবং আমরা সবে মাত্র ৩ (তিন) বছর হলো চলতে শুরু করেছি এই মুহুর্তে অনেক খরচ, আমার জানামতে লোকমান কোন জিনিস ফ্রি অফিসে আনেন নাই তার বিনিময় সে আটজনকে উক্ত প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দিছে যাদের কাছ থেকে কোন প্রকার টাকার লেনদেন করা হয়নি তারা খুশি হয়ে দিয়েছে তারা যদি তাদের জিনিসপত্র নিতে চায় তাহলে তা অবশ্যই দিয়ে দেয়া হবে বলে জানান প্রতিষ্ঠানের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক।

কাজী টিভি কি লোকমানের কাছে কোন টাকা পাবেন কিনা?

কাজী টিভি লোকমানের সাথে এ যাবত যে লেনদেন হয়েছে তার রিসিভ কপির ফোটকপি আছে তা হিসাব করে দেখে বলতে পারবো বলে জানান কাজী টিভির ব্যাবস্থাপনা পরিচালক কাজী মামুন।

উক্ত বিষয়ে বাংলাদেশ অনলাইন সংবাদপত্র সম্পদক পরিষদ (বনেক) সভাপতি ও কাজী টিভির উপদেষ্টা মণ্ডলীর সিনিয়র সভাপতি খাইরুল আলম রফিক বলেন লোকমানের বিষয়ে কাজী মামুন একাধিক বার অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন কিন্তু আমরা তার উপযুক্ত ঝোড়ালো প্রমান পায়নি কিন্তু এবার তার অপরাধের মাত্রা ও প্রমান খুব বাড়ি হওয়ায় আমরা হতাশ তাই তাকে বিহিষ্কারে আমারা একত্রতা প্রকাশ করি,এবং সে যদি কাজী টিভির সকল আইডি ও পাসাওয়ার্ড ফিরিয়ে না দেয় তাহলে প্রশাসনকে জোড় তাগিদ দিব শুধু তাই নয় কাজী টিভির সকল সদস্য ও মালিক পক্ষের শুরক্ষায় মহামারী করোনার পাদূর্ভাব শেষ হলে সারাদেশ ব্যাপী কঠর কর্মসূচী হাতে নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!