April 17, 2021, 8:08 pm

মহেশখালীতে পিতা হত্যার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন।

নিজস্ব সংবাদদাতা মহেশখালীঃ

মহেশখালী উপজেলার বড় ইউপিস্হ পৃর্ব জাগিরাঘোনা গ্রামের শফি হত্যার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করলেন তার পরিবার। উপজলায় গত ৫ মে ঘটে যাওয়া পূর্ব জাগিরাঘোনায় বহুল আলোচিত এবং সমালোচিত নুর শফি,র মৃত্যুর ঘটনাকে পরিকল্পিত বলে দাবি করছেন তার পরিবার।

গত ১১ই মে ২০২০ মৃত শফির
পরিবারের সদস্যরা সংবাদ সম্মেলন করেন।

এসময় তারা বলেন গত ৫ ই মে সুস্হ্য অবস্তায় তারাবী নামাজে যাওয়ার পর মৃত হয়েই বাসায় ফিরেন তিনি।

পরিবারের দাবি,মৃত শফির ভাই নুরুচ্ছফার সাথে তাদের দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছিল।তারই জের ধরে,চাচাতো ভাই মোহাম্মদ ইসলাম এবং কিছু ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা ৫ই মে রাতে শফি তারাবীর নামাজ পড়ে বাসায় ফেরার পথে বেধড়ক মারধর করে এবং তিনি ঘটনাস্তলেই মারা যান বলে দাবি করেন মৃত শফির পরিবার।তারা আরো দাবি করেন,ইসলাম এবং তার দলবল খুব পরিকল্পিতভাবে মৃত শফিকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিত খুনকে হার্ট অ্যাটাকে রূপদান করে এবং শফির লাশ বাড়ির উঠানে রেখে আসেন।পরবর্তীতে স্তানীয় কিছু প্রভাবশালী সসন্ত্রাসী পরিবারকে চাপ দিয়ে লাশের দাপনকার্য দ্রুত সম্পাদন করতে বাধ্য করে এবং তাদের এখনো প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে দাবি করেন।থানায় এ নিয়ে এজাহার দাবি করার পরেও মামলা হয়নি বলেও তারা জানান।
সর্বশেষ,শফির হত্যাকারীদের শাস্তি দেওয়ার জন্য প্রয়োজনে ওনার লাশকে কবর থেকে উঠাতেও প্রস্তুত আছে বলে জানান-শফির পরিবার।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!