জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে স্বপনকে বিজয়ী করতে চেয়ারম্যান ময়নার আহবান

 

সারোয়ার হোসেন, তানোর: আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার আসন্ন রাজশাহী জেলা পরিষ নির্বাচনে সাধারন সদস্য-২ পদে তালা প্রতিকের প্রার্থী ক্লিন ইমেজ পরায়ন তানোর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দল সমর্থিত সাবেক কলমা ইউপির চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম স্বপনকে বিজয়ী করতে আহবান জানিয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না। তিনি ভোটারদের অনুরোধ করে বলেন জেলা পরিষদ নির্বাচনে তানোর উপজেলা ২ নম্বব সাধারন আসন। আর এআসনে স্থানীয় আওয়ামীলীগ সমর্থিত মাইনুল ইসলাম স্বপনকে সমর্থন দেওয়া হয়েছে। তিনি নতুন সভাপতি হয়েছেন। অনেক আসায় দলীয় সমর্থন দেওয়া হয়েছে। কারন দলীয় প্রার্থী রা বিজয়ী হলে উন্নয়ন থেকে নানান কিছু সহজেই হয়ে পড়ে। এজন্য তৃনমুলের প্রতিনিধিদের অনুরোধ করে বলব মাইনুল ইসলাম স্বপনকে একটি করে ভোট দিয়ে তাকে বিজয়ী করুন,, তার মাধ্যমেই জেলা পরিষদের বরাদ্দ থেকে তানোরবাসী বন্চিত হবে না।
জানা গেছে, আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার রাজশাহী জেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান, সাধারন সদস্য ও সংরক্ষিত সদস্যরাও প্রার্থী হয়েছেন। জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটার শুধু মাত্র জনপ্রতিনিধিরা। তানোর উপজেলাকে ২ নম্বর সাধারন ওয়ার্ড । এই ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন দলীয় সমর্থিত প্রার্থী । তিনি তালা প্রতীকে ভোট করছেন। এই আসনে আরো কয়েকজন সতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ভোটের মাঠে থাকলে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন স্বপন। এর যথেষ্ঠ কারনও রয়েছে। সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে ছয়টিতে চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের এবং দুই পৌরসভার মেয়রও ক্ষমতাসীন দলের ও বেশিরভাগ মেম্বারও আওয়ামীলীগের। মুলত একারনেই তালা প্রতীকের প্রার্থী অনেক এগিয়ে। আরেক প্রার্থী ভোটের মাঠে রয়েছেন মুন্ডুমালা পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফা। তিনি হাতি প্রতীকে এবার প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন এবং গত নির্বাচনে সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার জানান, যারা ২ নম্বর ওয়ার্ডে সাধারন সদস্য পদে আগ্রহি প্রার্থীদের সিবি চাওয়া হয়েছিল। সে অনুযায়ী সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন ও গোলাম মোস্তফা সিবি জমা দিয়েছিলেন। দুই জনের মধ্যে দলীয় ভাবে স্বপনকে সমর্থন দেয়। কিন্তু তারপরও গোলাম মোস্তফা ভোটের মাঠে রয়েছেন। তবে উপজেলা আওয়ামীলীগের জনপ্রতিনিধি অনেক রয়েছে। আমার বিশ্বাস দলীয় সমর্থিত প্রার্থী কে তালা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন তানোরের প্রতিনিধিরা।
প্রার্থী মাইনুল ইসলাম স্বপন জানান, ইতিপূর্বেই সব ভোটারদের সাথে একাধিকবার কথা বলা হয়েছে। আসা করছি বিজয়ী হব ইনশায়াল্লাহ। তবে দলীয় ভাবে সমর্থন না দিলে ভোটের মাঠে থাকতাম না।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না জানান, আমার বিশ্বাস উপজেলার জনপ্রতিনিধিরা এক যোগে তালা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন। কারন তিনি দলের মনোনীত প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, এজন্য সবাইকে আবারো অনুরোধ করব তালা প্রতীকে আপনাদের মুল্যবান ভোট দিয়ে জেলা পরিষদ থেকে বরাদ্দ ও উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হবেন না।

 

সারোয়ার হোসেন
০১ অক্টোবর /২০২২ইং

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • মঙ্গলবার (রাত ১২:৩১)
  • ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ১২ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১