চাঁদপুর পদ্মা-মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় ১৮ জেলে আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক – মা ইলিশ রক্ষায় চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা নদীর অভয়াশ্রম এলাকায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে মাছ ধরায় ১৮ জেলেকে আটক করা হয়েছে। এসময় ১টি নৌকা, এক লাখ মিটার কারেন্ট জাল ও ১শ ২০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়েছে।

রবিবার দুপুর পর্যন্ত পদ্মা-মেঘনার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক জেলেদেরকে চাঁদপুর নৌ থানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ হেলাল চৌধূরী।

আটককৃত জেলেরা হলোঃ সদর উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের আব্দুস সালাম (৪৩), ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের চর ফতেজংপুর গ্রামের হেজু (৫৮),সোলেমান হক (৪৩),রহমান হাওলাদের (২২), মতলব উত্তর উপজেলার বাহাদারপুর গ্রামের ইউসুব কবিরাজ ( ৩৫),হেল্লাল কবিরাজ (২২),রুবেল (২০), ইউসুফ (২৮),মফিজ (২৫), জাহাঙ্গির কবিরাজ (৩৮), জনি (৩০) হাইমচর উপজেলার লামচরি গ্রামের রাব্বি (১৩), রবিউল (১৪), রাকিব (১৫), হানিফ (১৪), আবুল হাসনাত (১৫), একই উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের আব্দুল কুদ্দুস (১৫),নাজমুল হোসেন (৮)।

এছাড়া শিশু অপরাধী হওয়ায় তাদের কে মোচলেকার মাধ্যমে পরিবারের জিম্মায় দেয়া হয়েছে রাব্বি (১৩), রবিউল (১৪), রাকিব (১৫), হানিফ (১৪), আবুল হাসনাত (১৫), আব্দুল কুদ্দুস (১৫) ও নাজমুল হোসেন (৮)।

হেলাল চৌধূরী বলেন, উৎপাদন বাড়াতে মা ইলিশ রক্ষায় গত ৭ থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিনব্যাপি অভিযান চলছে। এ সময় ইলিশ ধরা, পরিবহণ, মজুত ও বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে সরকার। চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা নৌ-সীমানায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে। জেলেরা যাতে নদীতে মাছ শিকার করতে না পারে, সেজন্য জেলা টাস্কফোর্সে বিভিন্ন ইউনিট সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছে। আটককৃত নৌকা প্রকাশ্যে নিলামের মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়া হয়। এছাড়া জব্দকৃত ১শ ২০ কেজি মা ইলিশ সংরক্ষণের জন্য কোল্ড স্টোরে পাঠানো হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • বৃহস্পতিবার (ভোর ৫:৪৬)
  • ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৪ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১