রাজশাহী জেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান কে শুভেচ্ছা অভিনন্দন

 

সারোয়ার হোসেন, তানোর: রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথম বারের মত আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নার নেতৃত্বে সকল ইউপির চেয়ারম্যান ও সদস্যারা। এসময় আরো ছিলেন নব নির্বাচিত দুই নম্বর সাধারন সদস্য উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন, সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া সরদার, ভাইস চেয়ারম্যান আবু বাক্কার সিদ্দিক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল বাসার সুজনসহ সিনিয়র নেতারা। সোমবার সন্ধ্যার দিকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন এবং একে অন্যকে মিষ্টি মুক করানো হয়।
এক প্রতিক্রিয়ায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়না জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করায় ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। আরো বলেন তানোর উপজেলার জনপ্রতিনিধিরা দলীয় প্রার্থী কে বিপুল ভোট দিয়েছেন। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীর এত ভোট পাওয়ার কথা ছিল না। তানোর উপজেলা দুই নম্বর সাধারন ওয়ার্ড, এখানে সদস্য পদে স্থানীয় দলীয় ভাবে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপনকে সমর্থন দেওয়া হয়েছিল, তিনিও বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। সামনে আর কোন স্থানীয় নির্বাচন নেই। আগামী জাতীয় নির্বাচন মারাত্মক চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে হচ্ছে এবং সেই ভাবে নির্দেশনা আসছে বা শোনা যাচ্ছে। এজন্য স্থানীয় নির্বাচনে কি হয়েছে বা হয়নি সেদিকে না তাকিয়ে জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সকল ধরনের মান অভিমান ভুলে কাজ করতে হবে এবং এমপি ফারুক চৌধুরীকে আবারো যেন নির্বাচিত করতে পারা যায় সেই লক্ষ নিয়ে কাজ করার আহবান জানান এই জনপ্রতিনিধি । বিশেষ করে তানোরের তৃনমুল জনপ্রতিনিধিরা চেয়ারম্যান পদে কাপ পিরিচে বিপুল ভোট দিয়ে বিজয়ের অন্যতম ভুমিকা রেখেছেন। এটা আমাদের অভিভাবক এমপির দিক নির্দেশনা আর আমাদের পরিশ্রমের ফসল দিয়েছেন মহান সৃষ্টি কর্তা। এজন্য তার দরবারেও লাখলাখ শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। তিনি আরো বলেন এমপি দেশের বাহিরে থেকেও সার্বক্ষনিক যোগাযোগ করেছেন। তিনি বিজয়ী চেয়ারম্যান ও এক, দুয়ের বিজয়ী সাধারন সদস্যদের অভিনন্দন জানিয়ে ভোটারদের উপর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

নয়টি উপজেলার বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রাপ্ত ভোট অনুযায়ী জানা যায়,তানোরে আওয়ামীলীগ মনোনীত কাপ পিরিচের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল ভোট পেয়েছেন ৭৪ তার নিকটতম মোটরসাইকেল প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আখতারুজ্জামান আকতার পেয়েছেন ৪৪,
গোদাগাড়ীতে কাপ পিরিচ ৬৮ মোটরসাইকেল ৭৫,
মোহনপুরে ৪৫ ও ৪৮ পবায় ৮১ ও ৮৮
দুর্গাপুরে ৫৫ ও ৫১, পুঠিয়ায় ৪৫ ও ৪১, বাঘায় ৪৯ ও ৭১, চারঘাটে ৪৮ ও ৪২ বাগমারায় ১১২ ও ১২১ টি।
কাপ পিরিচের নয় উপজেলায় প্রাপ্ত ভোট ৫৯৯ ও মোটরসাইকেলের ৫৫৮। ৪০ ভোট বেশি পেয়ে দলীয় প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল কে বে সরকারী ভাবে বিজয়ী ঘোষনা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল।
নয়টি কেন্দ্রে শান্তিপুর্ন উৎসব মুখর পরিবেশে সোমবার সকাল ৮ থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত ইভিএমে ভোট প্রদানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

সারোয়ার হোসেন
১৭ অক্টোবর /২০২২ইং

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ৯:৩৫)
  • ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৪ঠা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০