বড় নয়, ছোট প্রকল্পে গুরুত্ব দিন অপচয় কমানঃ প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ

বড় প্রকল্পের চেয়ে ছোট, গ্রামীণ ও কল্যাণমুখী প্রকল্পে গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, ‘এ বিষয়ে কোনো আপস করা যাবে না। এসব প্রকল্পে অগ্রাধিকার দিতেই হবে। বড় প্রকল্পের ক্ষেত্রে গুণগতমান নিশ্চিত করতে সম্ভাব্যতা যাচাই ভালোভাবে করতে হবে। এছাড়া বিলাসী পণ্য এড়িয়ে চলার পাশাপাশি তহবিলের অপব্যবহার রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে।’

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে তিনি এই নির্দেশ দেন। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। এতে ৭টি উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ সময় ৩টি প্রকল্পের চতুর্থবার মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয়ে অবহিত করা হয়।

বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এ তথ্য জানান। ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, পরিকল্পনা সচিব মামুন-আল-রশীদ, ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য (সচিব) সত্যজিত কর্মকার, আইএমইডির সচিব আবু হেনা মোর্শেদ জামান এবং পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিনসহ কমিশনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদনে আরও সাবধান হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন, প্রকল্প যাচাই-বাছাইয়ে কঠোর হতে হবে। প্রকল্প থেকে আয়েশি আইটেম বাদ দিতে হবে। এটা পরিকল্পনা কমিশন করছে। কিন্তু এ কাজ আরও ভালোভাবে করে যেতে হবে। তিনি জানান, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বাড়ানোরও নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বলেছেন, অফিসে বা বাড়িতে বিলাসী পণ্য ব্যবহার কমাতে হবে। কৃষিতে জোর দিতে হবে। চাল, ডাল, মুরগি, সবজি, মাছসহ কৃষিপণ্য উৎপাদন বাড়াতে হবে। এক ইঞ্চি জমিও ফেলে রাখা যাবে না। এক্ষেত্রে ডিসিদের ঘুরে ঘুরে আবাদি জমি খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছেন। জমিতে মানুষকে চাষাবাদে উৎসাহিত করতে বলেছেন।

সেই সঙ্গে সন্দ্বীপে সবার আগে জেটি নির্মাণেরও নির্দেশ দিয়েছেন। পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, ‘কৃষি আমাদের প্রাণ। তাই আন্তর্জাতিকভাবে অবস্থা খারাপ হলেও কৃষি যদি ঠিক থাকে আমরা খেয়ে চলতে পারব। বর্তমানে মাঠে আমন ধান সোনালি রং ধারণ করেছে। আশা করছি ভালো হবে। বাংলাদেশ এখন কঠিন সময় পার করছে। এটা মোকাবিলা করা হচ্ছে। আমরা বিশ্ব পরিস্থিতির শিকার।’

তিনি বলেন, আক্ষরিক অর্থে বাংলাদেশ কোভিড-১৯ থেকে বেরিয়ে এসেছে; কিন্তু আমরা এখন ডেঙ্গিতে আক্রান্ত। প্রধানমন্ত্রী তাই ডেঙ্গি জ্বরের প্রাদুর্ভাব কমাতে বাসা-বাড়ি ও অফিস-আঙিনা পরিষ্কার রাখতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও দেশবাসীকে আরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • বৃহস্পতিবার (রাত ৪:৫৯)
  • ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৪ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১