শেখ রাসেলের জীবনী অনুসরণ করে তাঁর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশের গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবেন….ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর

 

সুজন পোদ্দার, কচুয়া (চাঁদপুর) প্রতিনিধি॥
শেখ রাসেলের নামটি ঘিরে নিশ্চই বঙ্গবন্ধুর মহৎ কোন স্বপ্ন বা আকাংখা ছিলো। তাঁর আশা ছিলো ছেলে বড় হয়ে একদিন জগৎখ্যাত হয়ে উঠবেন। শেখ রাসেলের ভুবন ছিলো তাঁর পিতা মাতা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শেখ ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিব, বোন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা ও ভাই শেখ জামাল ও শেখ কামালকে ঘিরে। তাদের সবার ভালোবাসার আদরের ধন ছিলো ছোট্ট রাসেল। রাসেলের জীবনের বেশির ভাগ সময় কেটেছে বাবা মুজিবকে ছাড়া। কারন বাবা মুজিব রাজনৈতিক কারনে বন্দী হয়ে কারাগারে ছিলেন দিনের পর দিন। শিশু রাসেল ছিলেন অভিমানী। তিনি ছিলেন বন্ধুবৎসল, গরিবদের জন্য ছিলো তাঁর দরদ, মমতা। জাতির পিতার গ্রামের বাড়ি টুঙ্গিপাড়াতে যখন সে যেত তথন গ্রামের ছেলেদের জন্য নতুন জামা নিয়ে যেতো। আজ তিনি বেঁচে থাকলে দেশ একজন গরীরবান্ধব নেতা পেতো। আপনারা শেখ রাসেলের জীবনী অনুসরণ করে তার আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে দেশের গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়াবেন। তিনি রবিবার বিকেলে উপজেলার ডুমুরিয়া বাজার এলাকায় শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের স্থায়ী কার্যালয় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মো. গোলাম হোসেন। এসময় তিনি বলেন, ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর একজন নক্ষত্র। নক্ষত্রের কাজ হলো আলো ছড়ানো।
তাই তিনি সেই কাজ করে যাচ্ছেন। আপনারা মহীউদ্দীন খান আলমগীরকে কচুয়ার উন্নয়নের রূপকার বলেন। আসলে তিনি সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের রূপকার। সারা বাংলাদেশের উন্নয়নে তিনি কাজ করেছেন। এখনো সেই কাজ অব্যাহত রেখেছেন।
এম. আলমগীর মজুমদারের সভাপতিত্বে ও শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মঞ্জুর এলাহী মজুমদারের সঞ্চালনায় অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির, ইউপি চেয়ারম্যান আঃ সালাম সওদাগর, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জিকে আলমগীর, উপজেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজালাল প্রধান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাচ্ছেল খান, ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক মেহেদী মোতালেব প্রমূখ।
এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুলতানা খানম, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট হেলাল উদ্দীন, কারুন্নাহার ভূইয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আকতার হোসেন সোহেল ভূইয়া ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি রাজীব আহমেদ রাজুসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড যৌথভাবে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি ও গোলাম হোসনকে মনোনীত করা হয়েছে। পরে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপিকে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হয়। শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই নেতা একই মঞ্চে বসলে দলীয় নেতাদের মধ্যে আনন্দ উচ্ছ্বাস এবং নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (দুপুর ২:০৮)
  • ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শীতকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮