তানোরে মানুষিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির জমি দখল নিতে মরিয়া চাচাতো ভায়েরা

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে মানুষিক রোগীর  ভোগ দখলীয় জমি পেতে মরিয়া হয়ে প্রান নাশসহ নানা ভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছেন প্রতিপক্ষ চাচা মজিবর ও তার ছেলে আতাউর বাহিনীরা বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই মানুষিক ব্যক্তির স্ত্রী বিউটি বেগম নিরুপায় হয়ে জমি  রক্ষা করতে বিজ্ঞ আদালতে   ১৪৪ ধারা জারির জন্য আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত সেটি আমলে নিয়ে ১৪৪ জারি করেন। এখবর জানতে পেরে  বিবাদী ভুমিগ্রাসী এলাকার ত্রাস হিসেবে পরিচিত আতাউর বাহিনী জমি দখল নিতে হত্যাসহ ভিটে বাড়ী উচ্ছেদ করে দিবেন বলেও অভিযোগ করেন মালিকের স্ত্রীসহ গ্রামবাসীরা।  উপজেলার কলমা ইউপি এলাকার ধনন্জয়পুর গ্রামে ঘটে রয়েছে  পর ঘটনা। পর দুবার ১৪৪ ধারা জারি করে চরম আতংকে দিন অতিবাহিত করছে জমির মালিক বাদী গৃহবধূ বিউটি বেগম ও তার অসুস্হ মানুষিক রোগী স্বামী শামিম।  কারন প্রতিপক্ষরা  দাঙ্গাবাজ ও লাঠিয়াল বাহিনী। এঘটনায় ওই গ্রামে এক প্রকার উত্তেজনা বিরাজ করছে, সেই সাথে নির্ঘুম রাতদিন পার করছেন অসহায় মহিলার পরিবারটি।
এজহারে উল্লেখ, উপজেলার কলমা ইউপি এলাকার ২১ নম্বর ধনন্জয়পুর মোজার অন্তর্গত আরএস ২৫ নম্বর খতিয়ানে ৪৫ নম্বর আরএস দাগে ৫০ শতাংশ জমি বিগত ২০২১ সালে ধনন্জয়পুর গ্রামের লুৎফর রহমান তার পুত্র শামিমকে দান করেন। কিন্তু ওই গ্রামের মজিবুর তার পুত্র আতাউরসহ তার বাহিনীরা জমিটি লাঠিয়াল মাস্তানদের মাধ্যমে দখল করতে উঠেপড়ে লেগেছেন।  প্রকৃত মালিকের স্ত্রী বিউটি বেগম চলতি বছরের জুলাই মাসে জমি রক্ষার জন্য ১৪৪ ধারা জারির জন্য বিজ্ঞ আদালতে আবেদন করেন। আদালতের বিচারক আবেদন আমলে নিয়ে ১৪৪ ধারা জারি এবং বাস্তবায়নে থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। যা গত ৩১ আগষ্ট পর্যন্ত বলবাদ ছিল। তবে দরখাস্তকারী পুনরায় ১৪৪ ধারা জারির জন্য আইনজীবির মাধ্যম আদালতকে অবহিত করলে দুই মাসের জন্য ১৪৪ ধারা বলবাদ করেন এবং সেই সাথে তা বাস্তবায়নে ওসিকে যাবতীয় ব্যবস্হা নেওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু এখবর জানতে পেরে প্রতিপক্ষরা জমিসহ ভিটে বাড়ি   দখলের জন্যও মরিয়া হয়ে উঠেছে। অসুস্হ শামিমের স্ত্রী বিউটি বেগম জানান, আমার শ্বশুর লুৎফর রহমানের নিকট আমন ভাই মজিবুর ৫০ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। এই জমিসহ আমার শ্বশুরের মোট ১ একর ২৯ শতাংশ  ০৮ পয়েন্ট জমি দান করেন আমার স্বামী শামিমের নামে। ওই সব জমি  শান্তি পূর্নভাবে দখল ভোগ করে আসছি। কিন্তু গত জুলাই মাসে মজিবর তার ছেলে আতাউর, জাহাঙ্গীর ও তাদের স্ত্রী ছেলে মেয়ে আত্মীয় স্বজন এবং বহিরাগত লাঠিয়াল বাহিনীসহ   আরো অনেকে অচেনা গুন্ডা বাহিনী নিয়ে জমি দখল করতে নামেন তারা। আমার স্বামী অসুস্হ আমরা চরম অসহায়। এজন্য তারা আমাদের উপর অমানুবিক নির্যাতন করছেন। সব সময় আতংক ভয় নিয়ে বসবাস করছি। মজিবর ৫০ শতাংশ জমি আমার শ্বশুরের কাছে বিক্রি করার পর পুনরায় একই জমি তিনি নাকি তার স্ত্রী কে দিয়েছেন। এমন জালিয়াতি দলিল বের করে এসব করছেন। অথচ আমার স্বামীর নামে খাজনা খারিজ চলমান। তারপরও এত জুলুম করছে বলার মত না। আমার স্বামী এসব নিয়ে টেনশন করে গুরুতর অসুস্হ হয়ে পড়ছেন। না জানি এসবের জন্য মারাও যেতে পারে। তারা ১৪৪ ধারা মানবে না বলেও হুমকি দিচ্ছেন।
তবে আতাউরের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা করে জমির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান আমার ভাতিজার সাথে কথা বলেন। তার ভাতিজা বলেন জমিটি নিয়ে আদালতে মামলা চলমান, যে রায় পাবে তার জমি হবে।
থানার ওসি কামরুজ্জামান মিয়া জানান, আদালতের নির্দেশ মানতে সবাইকে বলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা না মানলে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে।
সারোয়ার হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ১০:২৭)
  • ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০