ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২৪০দিনে ৪০৩ নরমাল ডেলিভারি

 

মেহেদী হাসান,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চলতি বছরে ৮ মাসে ৪০৩ জন গর্ভবর্তী মায়ের নরমাল ডেলিভারি হয়েছে। এ বছরের জানুয়ারী থেকে আগষ্ট মাস পর্যন্ত চিকিৎসক,নার্স ও মিডওয়াইফদের সহোযোগিতায় এই প্রচেষ্টা সফল হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্রে জানা গেছে, চিকিৎসক, নার্স ও মিডওয়াইফ সহ টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে আগষ্ট মাস পর্যন্ত ৪০৩ টি নরমাল ডেলিভারি করোনা হয়েছে।অন্যদিকে প্রসব পূর্ববর্তী এএনসি সেবা নিয়েছে ১ হাজার ৯৪৭ জন এবং প্রসব পরবর্তী পিএনসি সেবা নিয়েছে ৭৭২ জন। যার ফলে চলতি বছরের আগষ্ট মাসে সার্বিক বিষয়ের উপর বিবেচনা করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কতৃক প্রকাশিত মাসিক প্রতিবেদনে এইচএসএস স্বাস্থ্য ব্যবস্থা শক্তিশালীকরণ তালিকায় মূল্যায়নের ভিত্তিতে (৮০.০২) মার্কস পেয়ে দেশের প্রথম স্থান অর্জন করেছে এই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি। বর্তমানে হাসপাতালের ১৩৮টি পদের মধ্যে রয়েছে ৮৪ জন জনবল। বাকি ৫৪টি পদ শুন্য রয়েছে। এসব প্রতিবন্ধকতা পেরিয়েও এই সফলতা দাবী সংশ্লিষ্টপক্ষের।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে সন্তান প্রসবের এই সফলতায় সাদুবাদ জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল ।
জানা যায়, প্রসূতি মায়েদের নিরাপদ ভাবে নরমাল ডেলিভারি করাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক,নার্স ও মিডওয়াইফগণ টিম ওয়ার্ক করে কাজ করেন। এখানে প্রসব পুর্ববর্তি মায়েরা এএনসি সেবা নিতে এলে তাদের মোবাইল নাম্বার সহ ঠিকানা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে ওইসব প্রসুতি নারীদের ডেলিভারি না হওয়া পর্যন্ত কাউন্সেলিং আর ফ্রি চেকআপ করা হয় । এছাড়াও হটলাইনের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক পরামর্শ,বিনামুল্যে ঔষধ ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে নরমাল ডেলিভারিতে প্রসুতিদের আগ্রহী করা হয়।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নরমাল ডেলিভারী হওয়া বেশ কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ডেলিভারির পুর্বে তাদের ভয় লাগলেও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মাঠ কর্মী ও চিকিৎসকদের সাহসে হাসপাতালে এসে নিরাপদে স্বাভাবিক প্রসবে হয়েছে। এতে তাদের একদিকে যেমন খরচ বাঁচে গেছে, অন্যদিকে প্রসবকারী মায়েরাও সুস্থ রয়েছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কতৃপক্ষের এ ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করায় সেবা পেয়ে তারাও অনেক খুশি।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা(পপ) কর্মকর্তা ডা. মো: মশিউর রহমান আজকের পত্রিকাকে জানান, নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত করতে ও মাতৃমৃত্যুর হার কমাতে নিরাপদ নরমাল ডেলিভারি করতে দক্ষ মিডওয়াইফরা কাজ করে যাচ্ছে ফলে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা বাড়ছে এবং দিন দিন নরমাল ডেলিভারিতে প্রসুতিদের আগ্রহ বাড়ছে। কারণ হাসপাতালে নিরাপদে ডেলিভারি করানো হলে মৃত্যুর ঝুঁকি থাকেনা পাশাপাশি কোনো প্রকার অর্থও ব্যয় হয় না।গর্ভবতী মায়েদের ডাটাবেজের মাধ্যমে তাদের সরাসরি ও মোবাইল ফোনে খোঁজ-খবর নেওয়া হয় এবং প্রসব পূর্ববর্তী ও পরবর্তী চিকিৎসা বিনামুল্যে ঔষধ সহ পরমার্শ প্রদান করা হয়। যার ফলে নিয়মিত নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা বাড়ছে। তিনি আরো জানান,নরমাল ডেলিভারি হওয়ার পর সমাজ সেবা অধিদফতরের সহযোগিতায় জন্ম নেয়া শিশুর জন্য জামা-কাপড়, মশারি এবং ওই শিশুর মাকে উপহার দেয়া হয়। সকলের সহযোগিতা পেলে স্বাভাবিক সন্তান প্রসব আরো কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রেরক
মেহেদী হাসান
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ১০:৪৬)
  • ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০