এমপি ফারুক চৌধুরীর শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার সুজন

 

সারোয়ার হোসেন, তানোর: রুখে আল্লাহ মারে কে সুজনের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। যতই ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে ততই যেন দিন দিন আবুল বাসার সুজনের জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। রাজশাহী-১(তানোর-গোদাগাড়ী) আসনের তিন বারের সফল জনপ্রিয় এমপি সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক থেকে সভাপতি ও সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী ওমর ফারুক চৌধুরীর তানোর বাসীর জন্য শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার বিশিষ্ট সমাজসেবক তরুণ প্রজন্মের আইকন আবুল বাসার সুজন। এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর দিকনির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিনিয়ত তানোরের অলিগলিতে অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে সেবা দিতে ছুটে চলেছেন এই তরুণ নেতা আবুল বাসার সুজন। শুধু লাখ লাখ কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা থাকলেই নেতা হওয়া যায়না, ‘সবাই গরীব অসহায় মানুষের বন্ধু হতে পারে না’,তেমনি তানোরেও অনেক কোটিপতি নেতা আছে কিন্তু তাদের গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সৎ ইচ্ছে বা শক্তি নেই। তানোরে নেতা হওয়ার মত অনেক অর্থবিত্তশীল মানুষ আছে। কিন্তু তাঁরা নেতা তো দূরের কথা আরো অর্থ বিত্তের পাহাড় গড়তে সবসময় নিজের আখের গুছানোর জন্য ব্যস্ত হয়ে থাকেন।

অথচ সেই কোটিপতি ব্যাক্তিরা একটু যাকাত দিলে গরীব অসহায় মানুষদের না খেয়ে থাকতে হবে না। কিন্তু তাঁরা কোন গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো তো দূরের কথা রমজান মাসে ফেতরা পর্যন্ত দেয় কি না তা নিয়েও সন্দেহের কোন অবকাশ নেই। যার কারণে তানোরে টাকাওলা থাকলেও কেউ জনসেবক বা নেতা হয়ে উঠতে পারেনি। যার ফলে তানোর বাসীর মানোন্নয়নও ঘটেনি। এতে করে তানোর বাসীর জীবন জরাজীর্ণ থেকেই যায়। আর যখন তানোর বাসীর দুঃখ কষ্টের জরাজীর্ণ জীবন দুর্দশা থেকে টেনে তুলতে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার আবুল বাসার সুজন সক্ষম হতে শুরু করেছে ঠিক তখনই আবুল বাসার সুজনকে বিতর্কিত করে উন্নয়ন কাজে বাধাগ্রস্ত করতে কিছু কতিপয় আওয়ামী লীগ বিরোধী শিবিরে থাকা দলছুট নেতারা ব্যাকুল হয়ে পড়েছেন। তারা মিথ্যা বানোয়াট কাল্পনিক ভিত্তিহীন তথ্য অপপ্রচারে মরিয়া হয়ে উঠেছে পড়ে নেমেছে।

তৃণমূল আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা বিশিষ্ট আইনজীবী এ্যাডঃ আব্দুল আহাদসহ বেশকিছু নেতা জানান, যারা আবুল বাসার সুজনের নামে মিথ্যা প্রপাগন্ডা ছড়াচ্ছেন ‘তাঁরা কখনোই আওয়ামী লীগের নেতা বা কর্মী হতে পারেনা। এ্যাডঃ আব্দুল আহাদ বলেন,যে ছেলে এত অল্প বয়সে এত কম সময়ের মধ্যে মানুষের মন জয় করতে পারে সে কখনো মানুষের ক্ষতি করতে পারে না। আর আবুল বাসার সুজনের তো প্রশ্নই আসে না। যে মাত্র দু আড়াই বছরে তানোর পৌরসভার চিত্র পাল্টিয়ে দিয়েছে, নিজ অর্থায়নে রাস্তা ঘাট,মসজিদ মন্দিরসহ সাধারণ মানুষের আপদ বিপদে যেভাবে ছুটে গিয়ে সহযোগিতা করছেন তাতে তানোরের মানুষের জন্য আবুল বাসার সুজন একটি নিয়ামত বলে তারা মনে করছেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত, আগামিতে তানোর পৌরসভায় যদি এমপি তথা আওয়ামী লীগের আদর্শিক নেতৃত্বের বিজয় ঘটে তাহলে তানোরের মাটিতে তাদের রাজনীতির অধ্যায় শেষ হয়ে যাবে। এখন যেকোনো সময় তানোর পৌরসভায় নির্বাচন দিলে এমপির শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার আবুল বাসার সুজনের বিজয় সুনিশ্চিত। ফলে বিষয়টি উপলব্ধি করে সিন্ডিকেট চক্রের রাতের ঘুম হারাম হয়ে পড়েছে। তানোর পৌরসভার রাজনীতিতে এমপির অনুগত বা মুলধারার কোনো নতুন নেতৃত্ব বিকশিত হোক সেটা তারা চাইনা, আদর্শিক ও তরুণ নেতৃত্ব যেনো বিকশিত হতে না পারে সেটা প্রতিহত করতে সিন্ডিকেট চক্র এইসব প্রোপাগান্ডা প্রচার শুরু করেছে। তারা কখানো সুজনকে বহিরাগত,কখানো হাইব্রিড ইত্যাদি অপবাদ দিয়ে মিথ্যাচার করে জনগণের কাছে কোন সাড়া না পেয়ে হতাশ হয়ে এবার নতুন করে নিয়োগ বানিজ্যের অভিযোগ তুলে অপপ্রচার চালাচ্ছেন ,তবে রাজনীতিতে বহিরাগত বলে কোনো শব্দ নাই। তাদের আশংকা আগামিতে আবুল বাসার সুজন নেতৃত্বে আসলে তানোরের মাটিতে তাদের দাঁড়ানোর স্থান থাকবে না। সেই আশংকা থেকেই এই তরুণ সমাজ সেবক আবুল বাসার সুজনের বিরুদ্ধে তারা অপপ্রচার শুরু করেছে। এঘটনায় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ আমজনতা সিন্ডিকেট চক্রের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। যেকোনো মুহূর্তে নেতাকর্মীসহ জনসাধারণ তাদের রাস্তা ঘাটে ধরে প্রতিহত করবে এবং সমুচিত জবাব দিবেন বলে দলের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

 

সারোয়ার হোসেন
১৬ সেপ্টেম্বর /২০২২ইং

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (সন্ধ্যা ৭:৫০)
  • ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১