নরসিংদী জেলা আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি ও সম্পাদক নির্বাচিত

সাব্বির হোসেন, পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি : দীর্ঘ ৭ বছর পর নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নরসিংদীর মুসলেহ উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে কাণায় কাণায় পূর্ণ হয়ে যায় স্টেডিয়াম।

এ সম্মেলনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাজধানীর বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেন, দুুর্নীতির কারণে বিএনপি, জনবিচ্ছিন্ন দলে পরিণত হয়েছে। পক্ষান্তরে আওয়ামীলীগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী একটি রাজনৈতিক দল।

তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনের জন্য অযোগ্য হয়ে পড়েছে। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান দুজনই দন্ডপ্রাপ্ত। আইন অনুযায়ী দুজনের একজনও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। ফলে জন বিচ্ছিন্ন বিএনপি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতায় যেতে ষড়যন্ত্র করে চলেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ প্রতিপক্ষের সব ধরনের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করবে।

ওবায়দুল কাদের দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ঐক্যবদ্ধতার প্রতিক। ঐক্যের কোন বিকল্প নেই। আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থেকে আগামী নির্বাচনের জন্য কাজ করে যেতে হবে। তিনি বলেন, দল করলে দলের নিয়ম মেনে চলতে হবে, অনিয়ম করে দলের মনোনয়ন দেওয়ার দিন শেষ। আওয়ামী লীগ বা শেখ হাসিনা চিরদিনের জন্য কাউকে নেতৃত্ব ইজারা দেয়নি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ত্যাগী নেতারা আওয়ামীলীগের আস্থার ঠিকানা। দুঃসময়ের কর্মীরাই দলের আসল বন্ধু। ত্যাগী নেতাদের আর কোনঠাসা করে রাখা যাবে না। তাদেরকে স্থান দিতে হবে।

এর আগে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিএম তালেব হোসেন’র সভাপতিত্বে সম্মেলন স্থলে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য সাবেক মন্ত্রী এড. কামরুল ইসলাম এমপি, আওয়ামীলীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য, সাবেক মন্ত্রী রাজি উদ্দিন আহম্মেদ রাজু এমপি, শিল্পমন্ত্রী এড. নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি,

আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. নজিবুল্লাহ হিরু, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক এভ. মৃণাল কান্তি দাস এমপি।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা, শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান, শ্রম জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান সিরাজ, কার্যনির্বাহী সম্পাদক ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, এড. এবি এম রিয়াজুল কবীর কাউসার, এড. সানজিদা খানম, সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম,

নরসিংদী জেলা আ’লীগের সাবেক সভাপতি, নরসিংদী-১ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য লে. কর্ণেল (অব:) মো. নজরুল ইসলাম হিরু বীর প্রতিক, নরসিংদী-২ (পলাশ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ, নরসিংদী-৩ (শিবপুর) আসনের সাংসদ জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন. সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী, নরসিংদী জেলা পরিষদেও প্রশাসক আব্দুল মতিন ভূঁইয়া প্রমূখ।

সম্মেলনের উদ্বোধকের বক্তব্যকালে সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এমন একটি রাজনৈতিক দল। বাঙালীরা আজ যা কিছু পেয়েছেন। সব কিছু এই আওয়ামী লীগের হাত ধরেই এসেছে। দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জীবন দিয়েছেন।

নরসিংদীসহ সারাদেশে উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশে উন্নয়ন হচ্ছে। বাংলাদেশ আজ বিশ্বাসে বুকে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এই দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে হবে। এই ষড়যন্ত্রকারী কারা? যারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে হত্যার রাজনীতি জায়েজ করেছিল। এই ষড়যন্ত্রকারীরা দুর্নীতির মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশকে চাম্পিয়ান করেছিল। এরাই ষড়যন্ত্রকারী। এদের হাতে বাংলাদেশের সংবিধান ও গণতন্ত্র নিরাপদ নয়।

আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা এখন বিশ্ব নেতারাও করেন। তারা দেশে এসে সবাই শেখ হাসিনার প্রশংসা করে গিয়েছেন। কারণ তারা শেখ হাসিনার উন্নয়ন দেখেন কিন্তু বিএনপি তা দেখে না।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী ও চলার পথকে মসৃণ করাই আমাদের একমাত্র কাজ। এ জন্য আওয়ামীলীগের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে।

আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র লিপ্ত, দেশের জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র লিপ্ত। তারা চায় খুনি তারেক জিয়াকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বাধা গ্রস্ত করা। নির্বাচন কমিশন গঠনে বিএনপির নেতাদের সমালোচনার জবাবে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, এই বিএনপিই চেয়েছিল নির্বাচন কমিশন আইন হোক। জননেত্রী শেখ হাসিনা উদ্যোগ নিয়ে কমিশব আইন গঠন করেছেন। এখন এই বিএনপিই নবগঠিত কমিটি নিয়ে সমালোচনা করেন।

প্রথম অধিবেশন শেষে সভাপতিমন্ডলীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক’র সভাপতিত্বে স্থানীয় কাউন্সিলর ও ডেলিকেটেডদের উপস্থিতিতে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। দ্বিতীয় অধিবেশন শেষে জিএম তালেব হোসেনকে সভাপতি ও পীরজাদা মোহাম্মদ আলীকে সাধারণ সম্পাদক করে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ৯:৫৭)
  • ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০