ক’দিন বাদেই পূঁজা,দমফেলানোর ফুরসত নেই মৃৎশিল্পদের।

 

মেহেদী হাসান,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
ক’দিন বাদেই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ উৎসব স্বারদীয় দূর্গাপূঁজা।

প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার মৃৎশিল্পীরা । এখন খড়,কাদা,মাটি দিয়ে তৈরী করা প্রতিমা গুলোতে মাটির প্রলেপ দিয়ে ধিরে ধিরে মসৃন
করছেন।এখন শুধু রঙ তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তোলার অপেক্ষা।
সবমিলিয়ে প্রতিমা শিল্পীদের এখন দম ফেলার ফুসরত নেই। এরপর প্রতিমা গুলোকে সাজানো হবে নানা রকমের
অলংকার এবং রঙ্গিন কাপড় দিয়ে।

এবছর দ্রব্যমুল্যের দাম বেশি হওয়ায় প্রতিমা তৈরীতে খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে তেমন একটা লাভ হবেনা বলে জানিয়েছেন মৃৎশিল্পীরা।
জানা গেছে, এবার উপজেলায় ৭টি ইউরিয়ন ও একটি পৌরসভায় ৫৯ টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গা উৎসব উদর্যাপন করা হবে। এ উপলক্ষে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন উপজেলার মৃৎশিল্পীরা। বর্তমানে বাঁশ, খড় ও কাঁদামাটি দিয়ে প্রতিমার অবকাঠামো তৈরি ও প্রলেপ দেওয়ার প্রাথমিক কাজ শেষ করেছেন অনেকেই । কিছু কিছু মন্ডপে প্রতিমা গায়ে রং তুলির আঁচড় দিতেও দেখা গেছে। সময় মতো কাজ শেষ করতে পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও প্রতিমা তৈরিতে সহযোগিতা করছেন।
পৌর শহরের কেন্দ্রীয় কালি মন্দিরে প্রতিমা তৈরী করতে আসা মৃৎ শিল্পী বাবলু রায় জানান,আগে আমার বাবা কাজ করতো,বাবা মারা যাওয়ার পর আমি করছি। এবার আমি ও আমরা ছেলেসহ ৩টি মন্ডবের প্রতিমা তৈরীর কাজ নিয়েছি। প্রকার ভেদে প্রতিটি প্রতিমা তৈরীতে ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকা চুক্তি নেয়া হয়। বাশ,সুতলী মাটিসহ প্রতিমা তৈরীর উপকরন সংগ্রহ করতে অনেক টাকা লেগে যাচ্ছে। এবার খরচ অনেক বেশি হওয়ায় লাভ কিছুটা কম হবে।
একই কথা বলেন মৃৎ শিল্পী প্রদীপ চন্দ্র রায়,তিনি বলেন, সঠিক সময় কাজ শেষ করতে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করছি, রাত জেগে কাজ করতে হচ্ছে। এবার জিনিষপত্রের দাম অনেক বেশি প্রতিমা তৈরীতে খরচ বেশি হচ্ছে সে হিসেবে লাভ খুব একটা হবে না।
কেন্দ্রীয় কালি মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়রাম প্রসাদ বলেন,ফুলবাড়ী উপজেলায় প্রতিবছর সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ণভাবে পূজো উদযাপন করা হয়। এখানে কোনোপ্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনা। আশা করছি এবারো শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই পূজো অনুষ্ঠিত হবে। .
দিনাজপুর পুঁজা উদযাপন কমিটির সদস্য ও ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক অমরচাঁদ গুপ্ত অপু জানান, দূর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গার আগমনী বার্তায় ভক্তকূলে মধ্যে আনন্দের জোয়ার ও উৎসবের হাওয়া বইছে। এবারে মা দূর্গা হাতিতে চড়ে আগমন করবেন ও রোগ,শোক মুক্ত করে নৌকায় চড়ে গমন করবেন। শারদীয় দুর্গা উৎসব পালনে সকল পুঁজা মন্ডপে প্রশাসনের পাশাপাশি পুঁজা উদযাপন কমিটির বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া আছে। আগামী ১লা অক্টোবর ষষ্ঠী পূঁজার মাধ্যদিয়ে শুরু হয়ে ০৫ অক্টোবর বিজয়া দশমী হবে।
পরের দিন প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে স্বারদীয় দূর্গোউৎসবের আনুষ্ঠানিকতা।
বাংলাদেশ পুঁজা উদর্যাপন পরিষদ ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার সদস্য সচিব ধিমান চন্দ্র সাহা
বলেন,পুঁজা উদর্যাপনের জন্য সাকল বিষয়ে প্রস্তুতি
নেয়া হয়েছে।আবারো কমিটির মিটিং হবে সেখানে সকলের মতামতের ভিত্তিতে সববিষয়ে আলোচনা করে অন্যন্য সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোঃ আশ্রাফুল ইসলাম জানান, আসন্ন স্বারদীয় দূর্গা উৎসবকে সামনে রেখে আমরা উচ্চ পর্যায়ে দফায় দফায় বৈঠক করেছি,আইনশৃঙ্খলা সভাতেও আলোচনা হয়েছে। এবার উপজেলায় ৫৯ টি পূঁজামন্ডপে শান্তিপুর্ণ ও সুশৃঙ্খল ভাবে পুঁজা উদযাপনের লক্ষে উপজেলা প্রশাসন,থানা পুলিশ ও আনছার বাহিনীর পাশাপাশি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করবে। যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আমরা সজাগ রয়েছি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন বলেন, শারদীয় দূর্গোৎসব শান্তিপুর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে উদযাপনের লক্ষে্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। প্রতিটি মন্দিরে অতিরিক্ত সর্তকর্তার জন্য সিসি ক্যামেরা লাগাতে আয়োজকদের বলা হয়েছে। জরুরী প্রয়োজনে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হবে।

প্রেরক
মেহেদী হাসান
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • বুধবার (সন্ধ্যা ৭:১৩)
  • ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ২রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০