January 22, 2022, 8:38 pm

News Headline :
যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা না ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস করি- চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী ইবিকে বাস উপহার দিলো অগ্রণী ব্যাংক করোনায় ১৭ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ২৮.০২ মতলব উত্তরে নিশ্চিতপুর কল্যাণমূলক সংগঠনের শীতবস্ত্র বিতরণ ছেংগারচর পৌর আওয়ামী লীগের শীতার্তদের কম্বল বিতরণ ফরাজীকান্দি ইউপি’র চেয়ারম্যান ইঞ্জি. রেজাউল করিমের দায়িত্ব গ্রহন ও শোকরানা মিলাদ হাজীগঞ্জে দেয়াল চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু চিলমারীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঠে-ঘাটে চলছে দৌড় ঝাপ। শেরপুরে যুব সংস্থার উদ্যোগে শীতবস্র ও খাতা-কলম বিতরণ সোনারগাঁয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে কিশোর গ্যাং কালচার

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে সামার ও ফল সেমিস্টারের ভার্চুয়াল নবীনবরণ 

সাজেদ ফাতেমী, ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি :মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ছাত্রজীবন হচ্ছে জ্ঞানার্জনের জীবন। নিজের সম্পদ ইচ্ছা করলে মানুষকে দেয়া যায়। কিন্তু জ্ঞান এমন একটি সম্পদ, যা মানুষকে দেয়া যায় না। এই সম্পদ নিজেকে আহরণ করতে হয়, অর্জন করতে হয়। এ জন্যই বলা হয়, নলেজ ইজ পাওয়ার। এ কথা টাকা পয়সার ক্ষেত্রে বলা হয়নি। একজন মানুষকে বিচার করা হয় তাঁর জ্ঞান দিয়ে, সম্পদ দিয়ে নয়।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর,২০২০) সাভারের আশুলিয়ায় ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির সামার ও ফল সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের ভাচুর্য়াল নবীনবরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বেলা সাড়ে তিনটায় এ নবীনবরণ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির অ্যাডমিশন বিভাগের পরিচালক এএসএমজি ফারুক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. সহিদ আকতার হুসাইন। সম্মানিত অতিথি ছিলেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান শেখ মো. সাইদুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য এবং অ্যাডমিশন কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আজ্জম।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. সহিদ আকতার হুসাইন মাননীয় মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সম্পূর্ণ নির্দেশনা মোতাবেক পরিচালিত ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে ভর্তির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা সর্বোচ্চ সুবিধা পাচ্ছেন। তিনি বলেন, বর্তমানে এই ইউনিভার্সিটিতে ১১০ জন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বিনা পয়সায় পড়াশোনা করছে। ২০০৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত তাদের বৃত্তি দেয়া হয়েছে ছয় কোটি ৭৫ লাখ টাকা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক তাহমিনা আহমেদ, বাণিজ্য অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আব্বাস আলী খান এবং প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. মাহফুজুর রহমান। অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য দেন কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্রী মাহজাবীন বিনতে মান্নান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ পরিচালক সাজেদ ফাতেমী।

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ফেসবুক পেইজ থেকে সরাসরি সম্প্রচারিত এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের ডিন, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও নবীন শিক্ষার্থীরা সংযুক্ত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!