June 24, 2021, 6:46 am

News Headline :
জামালপুর পৌরসভার শহর সমন্বয় কমিটির প্রাক- বাজেট আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় তাহিরপুরে শিক্ষা অফিসে ঘুষের টাকা না দেওয়ায় শিক্ষক প্রাণনাশের হুমকি রোটারি ক্লাব অব পার্ল কর্তৃক করোনায় কাজ হারানো ব্যক্তিদের মাঝে সাইকেল, সেলাই মেশিন ও কাপড় প্রদান কবি আলী আক্কাস তালুকদারের বাবার মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক আজ সন্ধ্যার পর দেখা যাবে স্ট্রবেরি মুন নরসিংদীতে ২৪ ঘন্টায় আরও ১১ জনের করোনা শনাক্ত রাউজানে চুরি হওয়া অটোরিক্সা উদ্ধারঃ চোর চক্রের দুই সদস্য গ্রেপ্তার দেশে বাড়তে পারে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি কচুয়া-বরুড়া থানার সীমান্তবর্তী অপরাধ সভা কচুয়ায় আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক শক্তিশালী করার ১০ উপায়

ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য অনেকেই এখন ওয়াইফাই ব্যবহার করছেন। আর এ ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক প্রায়ই পূর্ণ গতিতে চালানো যায় না। এ লেখায় থাকছে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক শক্তিশালী করার কয়েকটি উপায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিবিসি।

১. রাউটার আপগ্রেড পুরনো অনেক রাউটারই ধীরগতিতে ইন্টারনেট সরবরাহ করে। আর এ সীমাবদ্ধতা দূর করার জন্য প্রয়োজন দ্রুতগতির রাউটার। এক্ষেত্রে আপনার রাউটারের গতি দেখে নিন। এটি যদি আপনার ইন্টারনেটের লাইনের তুলনায় কম গতির হয় তাহলে রাউটার পরিবর্তন করার প্রয়োজন হতে পারে।

২. রাউটারের অবস্থান আপনার ডিজিটাল ডিভাইসগুলোর সবচেয়ে কাছাকাছি স্থানে কোনো বাধা ছাড়া রাউটার রাখার চেষ্টা করুন। বাড়িতে বহু ভারি ফার্নিচার থাকলে সেগুলোর আড়ালে নয় বরং সেগুলোর উপরে রাউটার বসান। এতে বাধামুক্তভাবে রাউটার আপনার ডিভাইসগুলোর সঙ্গে সংযুক্ত হতে পারবে। এছাড়া বাড়ির এক প্রান্তে না রেখে তা বাড়ির মাঝামাঝি স্থানে বসানোই যুক্তিসঙ্গত।

৩. চ্যানেল বদলান আপনার রাউটারের ফ্রিকোয়েন্সি অন্য যন্ত্রপাতির ফ্রিকোয়েন্সির সঙ্গে কনফ্লিক্ট করছে কি না, তা জেনে রাখুন। আপনার রাউটার যদি ২.৪ গিগাহার্জ ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করে তাহলে তা কর্ডলেস ফোন, মাইক্রোওয়েভ, ব্লুটুথ, সিসিটিভি ইত্যাদির সঙ্গে কনফ্লিক্টের সম্ভাবনা থাকে। এক্ষেত্রে ৫ গিগাহার্জ কিংবা ভিন্ন কোনো ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করা সবচেয়ে ভালো।

৪. বাধা এড়ান রাউটারের সঙ্গে আপনার ডিভাইসের মাঝে দ্রুত যোগাযোগের পথে বহু জিনিসই বাধা সৃষ্টি করতে পারে। এসব বাধার মধ্যে রয়েছে ধাতব দরজা, অ্যালুমিনিয়াম কাঠামো, ওয়াল ইনসুলেশন, পানির ট্যাংক বা অ্যাকুরিয়াম, আয়না, হ্যালোজেন লাইট, গ্লাস ও কংক্রিট। এ ধরনের বাধাগুলো যেখানে সবচেয়ে কম সেখানেই প্রয়োজনীয় যন্ত্র বা রাউটার স্থাপন করুন।

৫. সফটওয়্যার আপডেট রাউটার ও ইন্টারনেট সরবরাহের কাজে নিয়োজিত বিভিন্ন সফটওয়্যার নিয়মিত আপগ্রেড হয়। একটু খেয়াল রেখে রাউটার ও মোবাইল ডিভাইস বা পিসির সফটওয়্যার আপডেট করে নিলে ইন্টারনেটের ভালো গতি পাওয়া যেতে পারে।

৬. এক্সটেন্ডার নেটওয়ার্ক বাড়ানোর জন্য এক্সটেন্ডার পাওয়া যায়। আপনার ওয়াইফাই রাউটার থেকে দূরে কোথাও ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রয়োজন হলে এক্সটেন্ডার ব্যবহার করতে পারেন।

৭. প্রতিবেশী আপনার ইন্টারনেটের সংযোগ কোনো প্রতিবেশী ব্যবহার করলে এতে আপনার ইন্টারনেটের গতি কমে যেতে পারে। তাই প্রতিবেশীদের থেকে সাবধান। অবশ্য কয়েকজন প্রতিবেশী মিলে একটি গতিশীল ইন্টারনেট নিয়ে তা শেয়ার করে ব্যবহার করাও একটি ভালো বুদ্ধি।

৮. নিরাপত্তা বাড়ান ওয়াইফাই ইন্টারনেটের জন্য WEP বাদ দিয়ে কিছুটা নিরাপদ WPA/WPA2 ব্যবহার করুন। এটি ইন্টারনেট ব্যবহারে নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। এছাড়া নিয়মিত পাসওয়ার্ড পরিবর্তনও প্রয়োজনীয়।

৯. গোপন রাখুন ওয়াইফাই নেটওয়ার্কে আপনার নাম ও ডিভাইসের বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। তার বদলে সাংকেতিক নাম ও অত্যন্ত গোপনীয় পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।

১০. টিন ফয়েল ব্যবহার করুন ওয়াইফাই রাউটারের অ্যান্টেনার বাইরে ডিশ অ্যান্টেনার মতো বা অন্য কোনো উপায়ে টিনের ফয়েল ব্যবহার করে সিগন্যাল বাড়ানো সম্ভব। অন্য উপায়গুলো কাজ না করলে এটি ব্যবহার করতে পারেন।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!