September 26, 2021, 3:26 am

News Headline :
এসডিজি অর্জনে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশাল আনন্দ মিছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকী উদযাপন ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের আগমনে চাঁদপুরজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আলোচনা ঝিকরগাছায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের মাধ্যমে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধে করণীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন——- প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ দলের নাম ভাঙ্গিয়ে অপকর্মে লিপ্তদের তালিকা করা হচ্ছে মতলব উত্তরে কলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ হোসাইন শিপুর উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র জন্মদিন ও এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার প্রাপ্তি উপলক্ষে মোহনপুর ইউনিয়ন আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠনের যৌথসভা ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিনে আলোচনা সভা মতলব উত্তরে বৃক্ষ রোপন ও মাস্ক বিতরণ মতলব উত্তরে শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্ম দিনউপলক্ষ্যে আনন্দ মিছিল

কচুয়ায় জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হামলা ও শ্লীলতাহানি! আহত ৩

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
কচুয়া উপজেলার পশ্চিম সহদেবপুর ইউনিয়নের কাঠাঁলিয়া দক্ষিণের বাড়িতে জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হামলা ও শ্লীলতাহানি করা হয়ে হয়েছে। এতে আহত ৩ জন। আহতরা হলেন-বাদী রিনা রানী সরকার, তার স্বামী সাদন চন্দ্র সরকার ও পুত্র বিপ্লব চন্দ্র সরর্কা
গত বুধবার পূর্বের জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পূজার হিসাব করার সময় একই বাড়ির নিখিল চন্দ্র সরকার(৬০), অগ্নি চন্দ্র সরকার(৫২), পরেশ চন্দ্র সরকার(৫০), নরেশ চন্দ্র সরকার(৪৮), জোটন চন্দ্র সরকার(২৬), হৃদয় চন্দ্র সরকার(২০), মিলন চন্দ্র সরকার(২২) লাঠি-সোঠা নিয়ে আমাদের উপর এ অর্তকিত হামলা চালায়। এ ব্যাপারে রিনা রানী সরকার বাদী হয়ে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
লিখিত অভিযোগে রিনা রানী সরকার জানায়- উল্লেখিত বিবাদীরা ও আমরা একই বাড়ির। বিবাদীরা উৎশৃঙ্খল, জুলুমবাজ, অত্যাচারী, পরসম্পদ লোভী ও লাঠিয়াল এলাকায় খারাপ প্রকৃতির মানুষ। বিবাদীগণ সমাজের কাউকে মান্য করে না। কথায় কথায় মারধর করে এবং বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি করে। উল্লেখিত বিবাদীদের সাথে আমাদের পূর্বে থেকে জায়গা সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ রয়েছে। বিবাদীরা কথায় কথায় বিভিন্ন অজুহাতে আমাদের সাথে প্রায় ঝগড়া করত। গত ১৫-০৪-২০২০ ইং তারিখ বুধবার আনুমানিক রাত ৮টা ২০ মিনিটে আমার স্বামী সাদন চন্দ্র সরকার সহ অন্যরা মিলে পূজার হিসাব করার সময় বিবাদীরা আমাদের বাড়িতে প্রবেশ করে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। আমার স্বামী প্রতিত্তোর করলে বিবাদীরা আমার স্বামীকে লাঠি সোঠা দিয়ে মারধর করা শুরু করে। আমার স্বামীকে রক্ষা করার জন্য আমি ঘর থেকে বের হলে বিবাদীরা আমাকে টেনে হেঁচড়ে কিল, ঘুষি, চড়, থাপ্পর দিয়ে আমাকে মাটিতে ফেলে আঘাত করতে থাকে। বিবাদীরা আমার তলপেটের জায়গায় লাথি এবং সমস্ত শরীরে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র দিয়ে আঘাত করে মারাত্মক রক্তাক্ত নীলাফুলা জখম করে। বিবাদীরা আমার শরীর থেকে বারবার কাপড় সরিয়ে আমাকে শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করে। বিবাদীরা আমার ছেলে বিপ্লব চন্দ্র সরকারকে এলোপাতারি ভাবে দা দিয়ে মাথার মধ্যে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। আমার ছেলে, আমার স্বামী এবং আমাকে বিবাদীদের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য এগিয়ে আসলে তাদেরকেও তারা অস্ত্র-সস্ত্র দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এক পর্যায়ে আমি এবং আমার ছেলে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে পার্শ্ববর্তী লোকজন এসে আমাদের ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করায়।
এছাড়াও তিনি অভিযোগে আরো জানান, বর্তমানে আমি সহ আমার ছেলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছি। আমার ছেলের মাথার ডান পার্শ্বে ৫টি এবং ডান হাতের আঙ্গুলে ৫টি সেলাই দিতে হয়েছে। বিবাদীরা আমার বাড়িতে প্রবেশ করে আমাদের বিভিন্ন আসবাবপত্র ভেঙ্গে ফেলে। বিবাদীরা আমার কানের গলার স্বর্ণ অলংকার আধা ভরি যার বাজার মূল্য ৩০হাজার, আমার ছেলে স্যামসাং মোবাইল যার বাজার মূল্য ১৬হাজার, আমার স্বামীর পকেট থেকে নগদ ১৭ হাজার টাকা নিয়ে যায়। বিবাদীরা ২/১ দিন পরপর আমার বাড়িতে এসে আমাকে সহ আমার পরিবারকে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে এবং আমার পরিবারকে জানে মেরে ফেলার হুমকি-ধুমকি প্রদান করে। বিবাদীরা প্রায় সময় গভীর রাত্রে আমার বসত বাড়ির সীমানায় এসে বড় বড় ইট পাথর দিয়ে আমার বাড়ির অর্তকিত হামলা করে। আমি বাদী অসহায় হয়ে বিবাদীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে তারা আমার ঘর ভেঙ্গে ফেলবে বলে এবং আমাকে প্রাননাশের হুমকি দেয়। বিবাদীদের বিরুদ্ধে একাধিকবার গ্রাম সালিশী বৈঠক করে সমাধান করলেও তারা গ্রাম্য সালিশীদের কথা অমান্য করে। গত ৩/৪ বছর পূর্বেও বিবাদীরা আমার পরিবারের উপর অর্তকিত হামলা চালিয়েছে। বিবাদীরা বারবার আমাকে একা পেয়ে আমার উপরে অর্তকিত হামলা চালানোর জন্য পায়তারা করে আসছে। বিবাদীরা কথায় কথায় আইন আদালতকে ভয় পায় না এবং আইন আদালত হাতের মুঠোয় বলে আমাদের জানে মেরে ফেলার হুমকি ধুমকি প্রদান করে।
এ ব্যাপারে বিবাদীদের কাছে মুঠো ফোনে জানতে চাওয়ার জন্য কয়েকবার কল দিলে তারা ফোন রিসিভ করেন নি।
হামলার এ ঘটনা সুষ্ঠ বিচারের দাবীতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবী করছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার লোকজন।
এ দিকে বিবাদীদের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর একাধিক ভাবে অভিযোগ রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!