October 18, 2021, 6:50 am

News Headline :
বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় এখানেই এসে সময় কাটায় মানুষ,’ যোগ করেন তিনি। নিয়ামতপুরে সমতল আদিবাসীদের মিলন মেলায় ঐতিহ্যবাহী সাঁওতালী নৃত্য প্রতিযোগিতায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে আমরা কোন ক্রমেই ভুলুষ্ঠিত হতে দিতে পারি না————————————-খাদ্যমন্ত্রী একতা বন্ধু মাহফিল কমিটির উদেগ্য এ পবিত্র জশনে জুলুস অনুষ্ঠিত হাইমচরে আদর্শ শিশু নিকেতন মাঠে ফায়ার সার্ভিসের মহড়া অনুষ্ঠিত রাউজানে আগুনে পুড়ল সিমেন্টের গুদাম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ফুলবাড়ীতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর তালিকায় নতুন তিন মুখ ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান। ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান। রাউজানে আ.লীগের দলীয় মানোনয়নপত্র ফরম গ্রহণ শুরু করেছেন চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীরা সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রনয়নের দাবীতে মাদারীপুরে ইউএনওর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান।

কুমিল্লা নগরে রাতের আঁধারে হতদরিদ্র মানুষের দ্বারে দ্বারে এমপি সীমা

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।
নির্জন রাত। নিস্তব্ধ নগরী। চারিদিকে শুনশান নীরবতা। করোনার প্রকোপে বিপাকে পড়া কর্মহীন ও হতদরিদ্র মানুষেরা ভাবনায় বিভোর। সপ্তাহব্যাপী নির্জন রাতে খাদ্য সামগ্রী হাতে নগরীর অলি-গলিতে ঘুরে বেড়ান সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য আঞ্জুম সুলতানা সীমা। কড়া নাড়েন কর্মহীন ও হতদরিদ্র মানুষের দুয়ারে। ব্যক্তিগত অর্থায়নে নিজ হাতে তুলে দেন নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী।
গত কয়েকদিনে কুমিল্লা নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে বিপর্যস্ত মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে নিজ হাতে তিনি এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। ইতোমধ্যে স্থানীয়দের তোলা ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য আঞ্জুম সুলতানা সীমার প্রচারবিমুখ কর্মকান্ডে সাড়া জাগায় জনমনে। ফেসুবক জুড়ে অভিনন্দনের ঝড় ওঠে।
এমপি সীমার এ মহতি উদ্যোগকে ‘ইসলামের ইতিহাসের খোলাফায়ে রাশেদীনের আদর্শের প্রতিফলন’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন ১২নং ওয়ার্ডের এক প্রবীণ খাদেম ফিরোজ।
নগরীরর ২২নং ওয়ার্ডেও মিজানুর রহমান পিটু বলেন- ইপিজেড এ চাকুরী করি এখনো এমাসের বেতন পাইনি। ঘওে বৃদ্ধ বাবা-মা আছেন।রাত সাড়ে ৯টায় হঠাৎ ঘরের দরজার ধাক্কা দিয়ে বাড়ির মালিক ডাক দেয়। আমি মনে করলাম বাসার ভাড়ার জন্য ডাক দিয়েছে। মনটা খারাপ হয়ে গেল। দরজা খুলেই দেখি সীমা আপা সালাম দিয়ে একটি বস্তা নেয়া জন্য বলল। আমি খুশিতে আতœহারা। এ সময়ে বস্তায় ৫কেজি চাউল, ৩কেজি পেয়াজ,এক কেজি মুশারী ডাল,২কেজি আটা,২কেজি সয়াবিন তেল,২টিসাবান,২টিমাস্ক ও ১টিহ্যান্ডসেনিজাইজার।পরক্ষণে আপা নিজ মোবাইল নাম্বারটি দিল বলল। প্রয়োজনে ফোন দিও। আমি চারিদিকে দেখলাম কেকে আছে। দেখলাম। একজন অটো চালক।,ওনার পিএস আর ২জন। আমি অবাক হলাম একজন এমপির সাথে তেমন লোকজন নাই।
চর্থার আলেয়া বেগম বলেন- রাতের বেলায় একজন এমপি আমাকে চাউল ডাল সাহায্য করেছে তাও আবার নিজ এসে। এটাই সাহায্য না সীমাআপা যে আমার বাড়িতে এসেছে এতেই আমার পেটের ক্ষিধা মিটে গেলে।
নুরপুর এলাকার শরীফ আহমেদ জানান- সীমা আপা রাতে আমাদের বাসায় এসেছেন আমাদেও এলাকার অসহায়দের নিজ হাতে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছেন। আমি মোবাইলে একটি ছবি তুলতে গেলে আপা নিষেধ করেন। আর এটা আমার কাছে অনেকে ভালো লেগেছে। আপা প্রচার ছাড়াই সাধারণ মানুষদের সাহায্য করছেন।
ঠাকুরপাড়ার অধ্যক্ষ তাপস পাল বলেন- বর্তমান প্রেক্ষাপটে করোনার প্রকোপে সমাজের নিম্নবিত্ত মানুষেরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এরা অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটালেও লজ্জার কারণে মুখ খুলে কারো কাছে কিছু চায় না। এমতাবস্থায় সামর্থবানদের উচিৎ এমপি সীমার অনুকরণে কর্মহীন ও হতদরিদ্রদের মানুষের প্রতি মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়া।
এ বিষয়ে আঞ্জুম সুলতানা সীমা এমপি বলেন- আমাদের মমতাময়ী বাংলার মা জননেত্রী আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যতটুকু সামর্থ্য সে অনুযায়ী আমি সাহায্য করছি। এ মহামারী যতদিন থাকবে ততদিন করে যাব। তবে প্রচার করে না। সাংবাদিকদের কাছে আবেদন -সাহায্য ভোগী কোন ব্যাক্তির ছবি প্রকাশ না করার অনুরোধ এমপি সীমার।
এমপি সীমার পিএস জয়ন্ত দেবনাথ বলেন- গত এক সপ্তাহ ধরে আপা ব্যাক্তি গত অর্থায়নে প্রাথমিক ভাবে কুমিল্লার নগরের ২৭টি ওয়ার্ড ও ৬টি ইউনিয়নে ৩টি ভাগে তালিকা করে সাহার্য্য করা হচ্ছে। অসহায় দুস্থদের ১০ কেজি চাউল ডালসহ ৮টি আইটেম,মধ্যবিত্তদের ৫ কেজি চাউল,নিম্ম আয়ের শ্রমিকদের ৮ কেজি চাউলসহ ৮টি আইটেম একটি বস্তা ভর্তি করে দেয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রায় ২হাজার ৪জনকে দেয়া হয়েছে। আর সীমা আপার মোবাইল নাম্বারে যারা ফোন দিচ্ছে তাদের ১০কেজিচাল,ডাল-সবজিসহ খাদ্য সামগ্রী তাহার বাড়িতে পৌছেঁ দেয়া হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!