January 22, 2022, 9:16 pm

News Headline :
যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা না ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস করি- চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী ইবিকে বাস উপহার দিলো অগ্রণী ব্যাংক করোনায় ১৭ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ২৮.০২ মতলব উত্তরে নিশ্চিতপুর কল্যাণমূলক সংগঠনের শীতবস্ত্র বিতরণ ছেংগারচর পৌর আওয়ামী লীগের শীতার্তদের কম্বল বিতরণ ফরাজীকান্দি ইউপি’র চেয়ারম্যান ইঞ্জি. রেজাউল করিমের দায়িত্ব গ্রহন ও শোকরানা মিলাদ হাজীগঞ্জে দেয়াল চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু চিলমারীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঠে-ঘাটে চলছে দৌড় ঝাপ। শেরপুরে যুব সংস্থার উদ্যোগে শীতবস্র ও খাতা-কলম বিতরণ সোনারগাঁয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে কিশোর গ্যাং কালচার

চাঁদপুরে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, প্রতিবাদ করায় হত্যার হুমকি, ধর্ষণকারী আটক

স্টাফ রিপোর্টারঃ
চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে বেশ কয়েকবার পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে জাকির হোসেন বেপারি নামে এক লম্পট। ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদ করায় ধর্ষণকারীর বড় ভাই বাদশা ধর্ষিতার বাড়িতে গিয়ে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার দুপুরে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের গাইনি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষিতা ৭৬ নং উত্তর বালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী।

বুধবার রাতে মডেল থানার এসআই নাসির সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে পূর্ব রঘুনাথপুর পাগল বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণকারী জাকির হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

জানা যায়, ১০ নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড পূর্ব রঘুনাথপুর আউয়াল বেপারি বাড়ির মনির হোসেন বেপারির এক ছেলে এক মেয়ে রেখে তার স্ত্রী কয়েক বছর পূর্বে চলে যায়। মনির হোসেন তার দুই সন্তান বাড়িতে রেখে নারায়ণগঞ্জে কাঁচামালের ব্যবসা করেন।

সেই সুযোগে ধর্ষিতা স্কুলছাত্রীকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণকারী মঙ্গল বেপারির ছেলে জাকির হোসেন বেপারি(২৬) গভীর রাতে দরোজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে কয়েকদিন ধর্ষণ করে। এই ঘটনা সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার কথা বললে লম্পট জাকির হোসেন ধর্ষিতা কিশোরীকে বিয়ে করবে বলে আশ্বস্ত করে।

এভাবে স্কুলছাত্রী কিশোরীকে পালাক্রমে তার ঘরে ঢুকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে। পরে ওই কিশোরী দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে ঘটনাটি তার পরিবারের লোকজনদের জানায়।

এই ঘটনা জানতে পেরে কিশোরীর বাবা মনির হোসেন নারায়ণগঞ্জ থেকে চাঁদপুরের এসে ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদ করে। এ সময় ধর্ষণকারী জাকির হোসেন বিষয়টি ৪০ হাজার টাকার বিনিময় সমঝোতা করার প্রস্তাব দেয়। কিন্তু এই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ধর্ষণকারীর বড় ভাই কালিবাড়ির মোড় বনফুল সুইটস দোকানের মালিক বাদসা ধর্ষিতার বাড়িতে গিয়ে তার বাবা ও পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয়। দুই মাসের মধ্যে তাদেরকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে আগুন লাগিয়ে দিবে বলে জানিয়ে আসে।

ধর্ষিতা স্কুলছাত্রীর বাবা মনির জানান, বাড়িতে একা পেয়ে মেয়েকে ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে।এই ঘটনা ধর্ষণকারী জাকির টাকার বিনিময়ে সমঝোতা করার চেষ্টা করে প্রস্তাবে রাজি না হলে তার ভাই বাদসা এসে হত্যার হুমকি দিয়ে যায়। আমরা এই ধর্ষণকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাই।

এই ঘটনা ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম খান কে জানালে তিনি থানায় অভিযোগ করে ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পরামর্শ দেন।
এদিকে থানা পুলিশকে বিষয়টি জানানো হলে পুলিশ নির্যাতিত ধর্ষিতা কিশোরীর চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে গাইনি বিভাগে নিয়ে যান। কর্তব্যরত ডাক্তার কিশোরীর মেডিকেল চেকআপ করেছেন এবং ধর্ষণের আলামত মিলেছে বলে কর্তব্যরত ডাক্তার জানিয়েছেন।

চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ ধর্ষণকারী জাকির হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসার পর তাকে ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য লম্পট জাকিরের ভাই বাদশা থানায় এসে মামলার বাদীকে চাপ প্রয়োগ করেন। এ ঘটনার পরেই ধর্ষণকারী ভাই বাদশা নির্দেশে ধর্ষিতার বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!