January 16, 2022, 6:23 pm

News Headline :
১হাজার শীতার্তদের মাঝে মোতাহার হোসেন এমপি’র শীতবস্ত্র বিতরণ ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে সেনা সদস্য নিহত মতলব উত্তরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন মতলব উত্তরে মুক্তিযোদ্ধা মেমোরিয়াল হাসপাতাল এর উদ্বোধন আজ বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট বিনয় ভূষন মজুমদারের শুভ জন্মদিন। হাইমচর উপজেলা পরিষদের সেবা নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে থাকবো …… চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারী নারায়ণগঞ্জ সিটিতে উৎসবমুখর ভোট, ফলের অপেক্ষা করোনার দৈনিক শনাক্ত ৫ হাজার ছাড়াল নির্বাচন কমিশন গঠন বিষয়ক মহামান্য রাষ্ট্রপতি বরাবর এনডিএম-এর প্রস্তাবনা বিদ্যালয়ের পাশে খড়ি দিয়ে চলছে অনুমতি বিহীন অবৈধ ইট ভাটা, ঘুমিয়ে রয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তর ও প্রশাসন সমাজ পরিবর্তনের অনেক বার্তা পেয়েছি এই কবিতার মাধ্যমে – আসাদুজ্জামান নুর এমপি

সংবাদ সম্মেলন ভুক্তভোগী পরিবারের দাবী পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে মিথ্যা মামলায় জেল হাজতে

বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির
নোয়াখালী সংবাদদাতাঃঃ

নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে অপহরণের মিথ্যা মামলার শিকার হয়ে কারা বরণ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগীর মা ছকিনা খাতুন। সে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের হামিদ আলী হাজী বাড়ীর মৃত নাছির আহম্মেদ’র স্ত্রী।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) বিকেল ৪টায় কোম্পানীগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী ছকিনা খাতুন লিখিত বক্তব্যে বলেন, ২০১৬সালে তার ছেলে গিয়াস উদ্দিন’র কাছ থেকে বিদেশ নেয়ার নামে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর আবদুস সোবহানের ছেলে নজরুল ইসলাম সুজন (৩৫) ভিসা বাবদ অগ্রিম ৩লক্ষ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। দীর্ঘ ৪ বছর অতিবাহিত হওয়ার পরও সে আমার ছেলে জামালকে বিদেশ নিতে ব্যর্থ হয়। সুজন বিভিন্ন অজুহাত দিয়ে টাকা পরিশোধে গড়িমসি করে। ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে এ টাকা তাকে দেয়ায় এখন ব্যাংক আমার বাড়ী ঘর নিলাম ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাকে ডেকে টাকা দেয়ার ছাপ সৃষ্টি করলে তার স্ত্রী মাহেরা বেগম মাহিন বাদী হয়ে গত শনিবার (১০ অক্টোবর) আমার ছেলে কামাল উদ্দিন, আজিজুল হক ইমন, মাহমুদ, পিয়াস, জিহাদ, নোবেল ও গিয়াস উদ্দিনকে আসামী করে মিথ্যা অপহরণ মামলা সাজিয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা করে। আমার বাড়ী থেকে তার বাড়ী একশ গজের মধ্যে হলেও পুলিশ কোন রকম তদন্ত না করে আমার নির্দোষ ছেলে কামাল উদ্দিন ও আজিজুল হক ইমন, মাহমুদ এবং পিয়াসকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করে।

অপরদিকে গত সোমবার (১২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টায় আমার ছেলেদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়ার কারণ জানতে চাইলে মোঃ আতাউল গণি স্বপন (৩০), মোঃ নজরুল ইসলাম সুজন (৩৫) ও মাহেরা আক্তার মাহিন (৩৮) আমাকে বেদড়ক পিটিয়ে আহত ও শ্লীলতাহানী করে আমার সাথে থাকা ৯০ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। গত মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) তাদের বিরুদ্ধে মামলা করলেও পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করছে না। আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং আমাকেও আমার পরিবারের লোকজনকে হত্যা করার হুমকি দিচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!