December 9, 2021, 11:06 am

News Headline :
নীলকমল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পত্র দাখিল করছেন সালাউদ্দিন সরদার। হাইমচরে ইউপি নির্বাচন শেষ দিনে নীলকমল ও আলগী উত্তরে নৌকা ও স্বতন্ত্র সহ ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল জনগনের ভোটের অধিকার যদি কেহ ছিনিয়ে নিতে চায়, আমার লাশ পরবে তবুও ভোট ছিনিয়ে নিতে দিবো না ……. হাবিবুর রহমান বেগ। আবারো অধিকার আদায়ে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতি নাটোরের বাগাতিপাড়ায় আন্তর্জাতিক দূর্নীতি বিরোধী দিবসে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা। শেরপুরে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন উপলক্ষে জয়িতাদের সংবর্ধনা হাতিয়ায় আন্তর্জাতিক দূর্নীতিবিরোধী দিবস ২০২১ পালিত টাঙ্গাইলের মধুপুরে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন ফুলবাড়ী উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত। ফুলবাড়ীতে ভিটামিন এ’প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিত করন সভা।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন নওগাঁর মানববন্ধন

অন্তর আহম্মেদ নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি : প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতন- হয়রানী ও মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের প্রতিবাদ এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে নওগাঁয় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১ টায় শহরের মুক্তির মোড়ে জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের আয়োজনে এ কর্মসূচী পালিত হয়।

জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি এবিএম রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা বাসদের সমন্বয়ক জয়নাল আবেদিন মকুল, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক এসএম আজাদ হোসের মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল নয়ন ও রিফাত হোসাইন সবুজ, একুশে উদযাপন পরিষদের সভাপতি হবিবুর রহমান চৌধুরী, জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কায়েস উদ্দিন, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি ওমর ফারুক, মানবাধিকার কর্মী সুষমা সাথী,আইটি ব্যক্তিত্ব তোফাজ্জল হোসেন তপু প্রমূখ।

এসময় বক্তরা বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম আন্তর্জাতিক এবং জাতীয়ভাবে পুরস্কারপ্রাপ্ত একজন সাংবাদিক। তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে সংবাদ করে যাচ্ছিলেন। এ কারনে তিনি নির্যাতন- হয়রানীর স্বীকার হয়েছেন। তার গলা চেপে ধরে কণ্ঠ রোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছিল। পেশাগত জীবনে সাহসের সঙ্গে তিনি দুর্নীতি, অনিয়ম ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের খবর তুলে ধরে আসছেন। দেশ ও জাতির জন্য এসব তথ্যপূর্ণ প্রতিবেদন করে তিনি জাতীয় হিরোতে পরিণত হয়েছেন। তাঁর মতো একজন সাংবাদিককে রাষ্ট্রের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয়ে আটকে রেখে ঘন্টার পর ঘন্টা নির্যাতন করার ঘটনা মানবাধিকার লঙ্ঘন। শুধু নির্যাতন নয়, জামিনযোগ্য একটি মামলায় একজন নারী সাংবাদিক এবং একজন মা হিসেবে একাধিকবার শুনানির পরেও জামিন না দেওয়া চরম ন্যাক্কারজনক। সাংবাদিক রোজিনাকে মুক্তি না দিলে আগামীতে কঠোর আন্দোলনের ঘোষনা দেয়া হয়।

এসময় জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও পেশাজীবীরা অংশ নেন।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!