January 22, 2022, 7:54 pm

News Headline :
যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা না ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলার অভ্যাস করি- চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী ইবিকে বাস উপহার দিলো অগ্রণী ব্যাংক করোনায় ১৭ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ২৮.০২ মতলব উত্তরে নিশ্চিতপুর কল্যাণমূলক সংগঠনের শীতবস্ত্র বিতরণ ছেংগারচর পৌর আওয়ামী লীগের শীতার্তদের কম্বল বিতরণ ফরাজীকান্দি ইউপি’র চেয়ারম্যান ইঞ্জি. রেজাউল করিমের দায়িত্ব গ্রহন ও শোকরানা মিলাদ হাজীগঞ্জে দেয়াল চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু চিলমারীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঠে-ঘাটে চলছে দৌড় ঝাপ। শেরপুরে যুব সংস্থার উদ্যোগে শীতবস্র ও খাতা-কলম বিতরণ সোনারগাঁয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে কিশোর গ্যাং কালচার

হাইমচরে হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি চলছে

মোঃ হোসেন গাজী।।

সারা বাংলাদেশের ন্যায় চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা শাখা বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে সুশৃঙ্খল ভাবে কর্ম বিরতি পালিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) হাইমচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সের সম্মুখে উপজেলা হেলথ এ্যাসিষ্টেন্ট এসোসিয়েশনের এ কর্ম বিরতি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় তারা তাদের দাবিগুলো সরকারের কাছে তুলে ধরেন।

ভ্যাকসিন হিরো সম্মাননা, স্বাস্থ্য সহকারীর অবদান, এ শ্লোগানে ১৯৯৮ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা, ২০১৮ ই সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঘোষণা এবং ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লিখিত প্রতিশ্রুতি স্বাস্থ্য পরির্দশক ১১তম গ্রেড সহকারী স্বাস্থ্যপরির্দশক ১২তম গ্রেড এবং স্বাস্থ্যসহকারীদের১৩ তম গ্রেড প্রদান করে নিয়োগবিধি সংশোধনের দাবিতে তারা এ কর্ম বিরতি পালন করেন।

কর্ম বিরতিতে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ড এসোসিয়েশনের চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন, এসময় তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৮ সালের ৬ ডিসেম্বর বেতন স্কেল সহ টেকনিক্যাল ঘোষণা দিয়েছিলেন এর পর থেকে দীর্ঘ ২২বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও আমলা তান্রীক জটিলতার করনে তা আজও বাস্তবায়িত হয়নি। ২০১৮ সালের ততকালীন স্বাস্থ্য মন্ত্রী মরহুম নাছিম সাহেব ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে একইভাবে কর্ম বিরতি ঘোষণা করলে বর্তমান স্বাস্থ্য মন্ত্রীর সভাপতিত্বে ও স্বাস্য সচিব-এর উপস্থিতিতে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক সহ উধবর্তন কর্মকর্তাদের আস্বস্ততায় ২০২০ সালের ১ লা জুলাই ট্রেনিং শুরু হবে বলে চিঠি ইসু করে, এই আশ্বাসের প্রেক্ষিত তখন কর্মবিরতি স্থগিত করা হয়। দীর্ঘ ৮ মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও তা আজও বাস্তবায়িত হয়নি। এর-ই প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ রবি উল আলম খোকন নতুন করে কর্মসূচি ঘোষণা করেন। অদ্য ২৬ নভেম্বর থেকে পূনরায় কর্ম বিরতি শুরু হয়। তাদের দাবি একটাই বিগত ১৯৯৮ সালের ততকালীন প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার তারা বাস্তবায়ন চায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য পরিদর্শক ( ইনচার্জ) বেনজির অাহম্মেদ,উপজেলা সভাপতি কবির হোসেন, উপজেলা এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা মোহাম্মদ উল্লা ও রিয়াদ হোসেন। স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও সহঃ স্বাস্থ্য পরিদর্শক এবং স্বাস্থ্য সহকারীগন সহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

error: Content is protected !!