June 26, 2022, 2:04 pm

News Headline :
পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী উৎসব রাউজানে হাইমচরে পানিতে ডুবে শিশুর করুণ মৃত্যু হয়েছে। শিশুর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে চিলমারীতে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে  আওয়ামী লীগের আনন্দ শােভাযাত্রা অনুষ্ঠিত।  পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান গাজীর আনন্দ মিছিল ও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ স্বপ্নের পদ্মা সেতু খুলে দেয়ায় পিরোজপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনন্দ র‌্যালী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে ফুলবাড়ী থানা পুলিশের আনন্দ শোভাযাত্রা গুগল ম্যাপেও স্বপ্নের পদ্মা সেতু পদ্মারপারে ‘পদ্মাকন্যা’ ঢাক-ঢোল পিটিয়ে জনসভার দিকে ছুটছে মানুষ, স্লোগানে মুখরিত পদ্মাপার

ফরিদগঞ্জে মামলার বাদীকে  হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় থানায় মামলা গ্রেফতার-৩

 

মোশারফ হোসেন ফারুক মৃধা ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

 

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে মামলার বাদীকে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন করেছে এলাকার একদল প্রভাবশালী। প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কায়দায় এ ভয়ানক বর্বরোচিত হামলায় শেখ ফরিদ মৃধা (৪০), ফয়েজ আহমেদ (৪৬) ও গৃহবধু ফাতেমা বেগম(২৩) গুরুতর আহত হয়েছে। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশেরপর অভিযুক্তদের আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। ১৬ সোমবার দুপুরে ফরিদগঞ্জে সাংবাদিকদের প্রেসপ্রিফিং করে বিষয়টি জানিয়েছেন (ফরিদগঞ্জ-হাজীগঞ্জ) থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহেল মাহমুদ পিপিএম।

জানাগেছে, উপজেলার ১৫ নং রূপসা উত্তর ইউনিয়নের রুস্তুমপুর গ্রামের শেখ ফরিদ মৃধা গংদের সাথে প্রতিবেশি দেলোয়ার হোসেন, লোকমান আমিন, মোজাম্মেল হোসেন বাবুল, মোশারফ হোসেন বাহার গংদের সম্পত্তিগত বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ২ মাস আগে শেখ ফরিদগংদের ওপর প্রতিপক্ষরা হামলা করলে বিষয়টি থানা পুলিশ তদন্ত করে নিয়মিত মামলা হিসেবে গ্রহন করে তদন্ত রিপোর্ট আদালতে পাঠায়।

তাই ভুক্তভোগীদের ওপর অভিযুক্তরা ক্ষীপ্ত  হয়ে ১৩ মে শুক্রবার প্রকাশে স্থানীয় রুস্তুরপুর বাজারে মামলার বাদীকে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন করেছে।

বিষয়টি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে ১৫মে শুক্রবার রাতে ফরিদগঞ্জ থানায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়। রাতেই ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত মো. দেলোয়ার হোসেন (৬৫), মো. লোকমান হোসেন (৬৮), মাহাবুব আব্দুল সোহেল (৩২)কে গ্রেফতার  করেছে পুলিশ। বাকিদের গ্রেফতার  অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

হামলার শিকার শেখ মৃধা জানান, শুক্রবারে আমরা দুই ভাই প্রয়োজনীয় কাজে রুস্তুমপুর বাজারে গেলে আমাদের প্রতিপক্ষ দেলোয়ার হোসেন, লোকমান আমিন, মোজাম্মেল হোসেন বাবুল, হোসেন ফকির, সোহেল হাজী, মিজান হাজী গ্যাং পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমাদের হাট-পা বেঁধে বেধড়ক মেরেছে। এ সময় খবর পেয়ে আমাদের পরিবারের সদস্যরা বাঁচাতে এলে তাদের ওপরও হামলা করে তারা। পরে স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসলে পুলিশ পায়ের বাঁধ খুলে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। আমরা এর বিচার চাই।

এ সময় ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহীদ হোসেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কুদ্দুসসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © greenbanglanews.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD