পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা: খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি :
পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা: খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, স্বেচ্ছাচারিতা, অন্যায়-অনিয়ম ও দূর্নীতিসহ মানুষের সাথে দূর্ব্যবহার, জনগনকে মিথ্যা হয়রানির প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে কাউখালী উপজেলা থেকে অপসারন এর দাবীতে সর্বস্তরের জনগনের উদ্যোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। আজ সেমাবার বেলা ১১ টায় পিরোজপুরের কাউখালী বাসস্ট্যান্ড মোড়ে অনুষ্ঠিত স্বল্প সময়ের এ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রশিদ মিল্টন, মুক্তিযোদ্ধা মো: মোফাজেল তালুকদার, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান শেখ মৌসুমী ইসলাম। এ সময়ে সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হারুন অর রশিদও উপস্থিত ছিলেন। পরে পুলিশ এলে তারা সেখান থেকে চলে গিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসে অবস্থান নেয়। সেখানে বক্তব্য রাখেন কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার পল্টন, সহ সভাপতি মাহমুদ খান খোকন।

কাউখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার পল্টন জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা: খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, স্বেচ্ছাচারিতা, অন্যায়-অনিয়ম ও দূর্নীতিসহ মানুষের সাথে দূর্ব্যবহার সহ অনেক অভিযোগ রয়েছে। তিনি আওয়ামীলীগ বিরোধী সকল কর্মসূচীতে তিনি আওয়ামীলীগকে কোনঠাঁসা করে রাখেন। তার স্বেচ্ছাচারিতা, অন্যায়-অনিয়ম এর কারনেই আজ সাধঅরণ মানুষ একত্রিত হয়েছে। আমরা অবিলম্বে কাউখালী উপজেলা থেকে এই নির্বাহী অফিসার কে অপসারন করা হোক।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মাহমুদ খান খোকন জানান, নির্বাহী অফিসার মোসা: খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার অন্যায়-অনিয়ম ও দূর্নীতির একাধিক অভিযোগ রয়েছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের ঘরের তালিকা নিজেই করেছেন এবং নিজেই আবার অনেকের নাম কেটে দিয়েছেন। তিনি আওয়ামীলীগ তথা নৌকা বিরোধী। বিগত ইউপি নির্বাচনে বিরোধী পক্ষের থেকে অর্থনৈতিক সুবিধা নিয়ে তিনি দুটি ইউনিয়নে নৌকাকে পরাজিত করেছেন।

উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রশিদ মিল্টন বলেন, তিনি সকারের উন্নয়নকে ব্যহত করছেন। তিনি টিআর কাবিখা, বীরনিবাস, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর সহ বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম করেছেন বলে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অপসারন এর দাবীতে সর্বস্তরের জনগনের রাস্তায় নেমে এসেছে। আমরা তার অসসরন চাই।

তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা: খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের ব্যাপারে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। অসৎ কাজে সাহায্য না করায় একটি মহল উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে তার বিরুদ্ধে এসব চক্রান্ত চালাচ্ছে।

পিরোজপুর প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • রবিবার (সকাল ৮:৪৯)
  • ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০