ফরিদগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃক  গ্রাহক হয়রানী মূলক মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে রুপসায় মানববন্ধন

 

মোশারফ হোসেন ফারুক মৃধা ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার রুপসা ও এর আশেপাশের এলাকার পল্লীবিদ্যুতের অসহনীয় লোডসেডিং, ভুতরে বিল প্রদান, গ্রাহক হয়রানী বন্ধ, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ দাবী করায় মেঘনা পূর্ব পাড়ের সাবেক রুপসা জমিদার পরিবারের অন্যতম সদস্য  সৈয়দ হাসান চৌধুরী এবং রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি মোঃ ফারুক খাঁন সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদ্বয়দের বিরুদ্ধে ফরিদগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ কতৃক দায়ের করা গ্রাহক হয়রানী মূলক মিথ্যে  মামলা ও ফরিদগঞ্জ পল্লীবিদ্যুতের  ডিজিএম প্রত্যহারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

রুপসা ও আশপাশের এলাকাবাসীর আয়োজনে বৃহস্পতিবার ২৩ জুন সকাল ১০ টায় রুপসা জমিদার বাড়ীর সামনে রুপসা বাজার সড়কে এ মানব বন্ধন করা হয়।

দীর্ঘ ১ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন, রুপসা বাজার ব্যবসায়ীগন,রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সদস্যগন, রুপসা আহম্মদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও রুপসা আহম্মদিয়া আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী,  রুপসা শাখার  এশিয়া ব্যাংক ও অগ্রনী ব্যাংকের কর্মকর্তাগন ও আশপাশের এলাকাবাসী সহ রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

এসময় বক্তব্য রাখেন, রুপসা উত্তর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ বিল্লাল হোসেন ভূঁইয়া, মোঃ আমিন পাটওয়ারী, ইউপি সদস্য মোঃ জহিরুল ইসলাম,  মোঃ হাসান, সাংবাদিক জাহিদুল ইসলাম, রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সহসাধারন সম্পাদক রিয়াদ হোসেন,

 

বক্তারা বলেন, রুপসা বাজার ও আশপাশের এলাকার পল্লীবিদ্যুতের অসহনীয় লোডসেডিং, ভুতরে বিল প্রদান, গ্রাহক হয়রানী বন্ধ, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ দাবী করায় রুপসা জমিদার পরিবারের সদস্য মেহেদী হাসান চৌধুরী ও রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি মোঃ ফারুক খাঁন সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফরিদগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃক  হয়রানী মূলক মিথ্যে মামলা দায়ের করায় মানববন্ধন স্হল থেকে এর তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।  এবং সদ্য গ্রেফতার হওয়া মোঃ ফারুক খাঁনকে অনতিবিলম্বে নিঃস্বর্তে মুক্তি সহ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান বক্তরা। বক্তরা আরোও বলেন, সরকার কর্তৃক বিদ্যুতের রেকর্ড উৎপাদন হলেও ফরিদগঞ্জ পল্লীবিদ্যুতের দুর্নীতিবাজ ডিজিএম এর কারনে সুফল হতে বঞ্চিত  রুপসা সহ আশপাশের এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য গত ২০ জুন সোমবার সকাল ১০টায় রূপসা এলাকা বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন করতে গেলে স্থানীয় জনতা ও ব্যবসায়ীরা এজিএম (কম) সহ কয়েকজনকে আটক করে।

পরবর্তীতে স্থানীয় জনতার রোষানলে পড়ে তাদেরকে স্থানীয় জনতার কাছ থেকে উদ্ধার করে সৈয়দ মেহেদী হাসান চৌধুরীর বাড়িতে রাখা হয়।   পরবর্তীতে  সৈয়দ মেহেদী হাসান,  রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি ফারুক খাঁন ও ফরিদগঞ্জ থানার এস আই একরামুল ইসলামের সমন্বয়ে আটক হওয়া এজিএম কম ও সহকর্মীদের সাথে  বাজার ব্যবসায়ী ও স্হানীয় জনতার সহিত বিরোধ মিটিয়ে দেন।

বিষয়টি মিমাংসিত হলেও ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার ২১ জুন পল্লীবিদ্যুতের এজিএম (কম) রুপসা জমিদার পরিবারের সদস্য সৈয়দ হাসান চৌধুরী ও রুপসা বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাবেক সভাপতি মোঃ ফারুক খাঁন সহ ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরোও ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (রাত ৩:৩২)
  • ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১