আগামী সেপ্টেম্বরে উদ্ভোধন বেকুটিয়ায় ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রি সেতু দুই সেতুতে ভাগ্যের পরিবর্তন হবে দক্ষিনাঞ্চলবাসীর …. মৎস ও প্রানীসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

পিরোজপুর প্রতিনিধি :
বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ বাংলাদেশের সকল অঞ্চলের উন্নয়নে সমতা। দীর্ঘদিন দক্ষিনাঞ্চল অবহেলিত ছিল, সেজন্য তিনি অনেক ঝুকি নিয়ে পদ্মা সেতু নির্মান করে বিশে^র বুকে একটি বিস্ময় সৃষ্টি করেছেন। বেকুটিয়া পয়েন্টে কচাঁ নদীর ওপর নির্মিত ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু হচ্ছে শেখ হাসিনার আরেকটি পদক্ষেপ। যাতে দক্ষিনাঞ্চলে যোগাযোগে কোন ঘাটতি না থাকে। আগামী সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কচাঁ নদীর ওপর নির্মিত ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর উদ্ভোধন করে জন সাধারনের চলাচলের জন্য উন্মূক্ত কওে দেবেন। পদ্মা সেতু ও ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু দুইটির কারনে দক্ষিনাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে। পর্যটন এলাকা কুয়াকাটা থেকে শুরু করে ঢাকা-খুলনা-যশোর হয়ে বেনাপোল বন্দর পর্যন্ত আর কোন ফেরী পার হতে হবেনা আমাদের।
শুক্রবার সন্ধ্যায় পিরোজপুরের কচা নদীতে নির্মিত ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর সার্বিক অবস্থা পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন, মৎস ও প্রানী সম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি। পরিদর্শনকালে মন্ত্রী সেতুর নিরাপত্তার বিষয়ে সজাগ থাকতে বলেন দায়িত্ত্বরতদের। এ সময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নূরী, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান, সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সুলতান মাহমুদসহ বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ।
এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন আমাদের এ অঞ্চল কৃষি নির্ভর।আমাদের এলাকার কৃষকরা পন্যের সঠিক মূল্য পায় না। এই সেতুর ফলে আমাদের উৎপাদিত সকল ফসল দেশের আরেক প্রাপ্ত পর্যন্ত ছড়িয়ে যাবে। কোথাও তাদের আটকে থাকতে হবে না। দ্রুততার সাথে ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় পৌছে যাবে। সব মিলিয়ে গ্রামীন অর্থনীতিতে অভূতপূর্ব সাফল্য আসবে এ অঞ্চলের।

পিরোজপুর প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (রাত ৩:৪৩)
  • ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  • ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১