তানোরে কৃষি কর্মকর্তাদের কাছে কৃষি সেবা পাচ্ছেন না কৃষকরা 

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে কৃষি বিভাগের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের (এসএএও) বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। এতে  প্রান্তিক কৃষকেরা কৃষি সেবা পাচ্ছেন না। কৃষকদের মতে, কৃষি সম্প্রসারণ নীতির উপাদান সমূহ বাস্তবায়নে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। কিন্ত্ত উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের দায়িত্বঅবহেলার কারণে কৃষকরা এ বিভাগ থেকে কোনো সেবা পাচ্ছেন না। গ্রাম বা মাঠপর্যায়ে সেবাপ্রাপ্তি তো দুরে থাক শতকরা প্রায় ৮০ ভাগ কৃষক উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের চেনেন না জানেন না।
ফলে কোনো রকমের কৃষি বিশেষজ্ঞ পরামর্শ ছাড়া বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা নিজেদের অভিজ্ঞতায় চাষাবাদ করতে। কৃষকেরা মাটির উর্বরতার হ্রাস-বৃদ্ধি কিংবা উপাদনের ঘাটতি না জেনেই সারসহ নানা উপকরণ ব্যবহার চাষাবাদ করছেন। আর এতে  কৃষকরা প্রত্যাশা অনুযায়ী ফলন উৎপাদনে ব্যর্থ হচ্ছেন।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার দুটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নে ২৩টি (এসএএও) পদের বিপরীতে ১৬ জন কর্মরত রয়েছেন। কিন্ত্ত দুঃখজনক হলেও সত্য, বেশিরভাগ সময় সাধারণ কৃষক এসব কর্মকর্তাদের কাছে পাচ্ছেন না, পাচ্ছেন না কোনো কৃষি পরামর্শ।
তানোরের দিব্যস্থল গ্রামের কৃষক তোজাম্মেল (৩৩), মাড়িয়া গ্রামের কৃষক সাইদুর, কৃষ্ণপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম বলেন, মাঠপর্যায়ে কৃষকদের পরমর্শের জন্য উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রয়েছেন এ বিষয়টিই তারা জানেন না, কারণ তারা কখনও তাদের এলাকায় এসব কর্মকর্তাদের কর্মকান্ড চোখেই দেখেননি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আদর্শ কৃষক অভিযোগ করে বলেন, কৃষি বিভাগের বেশিরভাগ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিয়মিত ও সঠিক অফিস সময়ে উপস্থিত না হওয়ার অভিযোগ অনেক পুরুনো। এমনকি কৃষি কর্মকর্তার নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করার কথা থাকলেও তানোরে এই নিয়ম মানা হচ্ছে না। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নিজ কর্মস্থলে অবস্থান না করে রাজশাহী শহর থেকে যাতায়াত করেন। তিনি সকাল ১১টায় অফিস এসে আবার দুপুর ২ টার পরে কর্মস্থল ত্যাগ করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। যে কারণে বেশির ভাগ সময় তিনি অফিস সময়ে উপস্থিত হতে পারেন না। ফলে এলাকার কৃষকরা কৃষি কর্মকর্তার কাছ থেকেও তেমন কোনো পরামর্শ পান না। কৃষি কর্মকর্তার কর্মস্থলে উপস্থিত নিশ্চিত করতে এলাকার কৃষকরা স্থানীয় সাংসদ ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এ ব্যাপারে মুঠোফনে যোগাযোগ করা হলে তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল্লাহ এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কোনো উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট  অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সারোয়ার হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ১০:১৭)
  • ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০