ত্রিশালে সাময়িক বরখাস্তকৃত সুপারের অবৈধভাবে মাদ্রাসার দায়িত্বে থাকার অভিযোগ

 

এস.এম রুবেল আকন্দ:
ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় ধানীখোলা ইউনিয়নের মৈশাটেকী দাখিল মাদ্রাসায় সাময়িক দরখাস্তকৃত সুপার মো. শফিকুল ইসলাম অবৈধভাবে প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন করছেন বলে অভিযোগ করেন অত্র মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা মো. হাবিবুর রহমান।
অভিযোগে জানা যায়, অত্র মাদ্রাসার সুপার মো. শফিকুল ইসলামকে ৭ মে ২০১৩ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে তাকে সাময়িক দরখাস্ত ও ৭ মে ২০১৩ সালে তার এমপিও স্থগিত করে মাদ্রাসার এডহক কমিটি। অত্র মাদ্রাসার সহ-সুপার মো. সুরুজ্জামানকে ভারপ্রাপ্ত সুপারের দায়িত্ব দেয় মাদ্রাসার কমিটি।
সাময়িক বরখাস্তকৃত সুপার মো. শফিকুল ইসলাম মহামান্য হাইকোর্টে তার এমপিও পুনরায় চালু করতে আবেদন করলে মহামান্য হাইকোর্ট ৫০℅ বেতন প্রদানের নির্দেশ দেন। তিনি পুনরায় দায়িত্ব পাওয়ার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় তার আবেদন বিধি সম্মত নয় বলে বাতিল করেন এবং তাকে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আবেদন করার নির্দেশ দেন। ২০১৪ সালের ২১ ডিসেম্বর তার আবেদন ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে প্রেরণ করেন এবং ২০১৫ সালে ১ ফেব্রুয়ারি ঐ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্তকৃত সুপার মো. শফিকুল ইসলামকে অবহিত করে তার পদে পূর্ণবহাল ও বেতন-ভাতা প্রদান সংক্রান্ত বিষয়ে মাদ্রাসার নিয়মিত ম্যানেজিং কমিটির এখতিয়ারাধীন।
২০১৫ সালের পর থেকে অদ্যবধি অত্র মাদ্রাসার কোনো নিয়মিত ম্যানেজিং কমিটি না থাকায় মো. শফিকুল ইসলাম স্ব-পদে পূর্ণবহাল হতে পারেনি।তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত সুপার মো. সুরুজ্জামান অন্যত্র চাকরি নেয়ায় মো. শফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন যাবৎ জোরপূর্বক বেআইনিভাবে পরিপূর্ণ সুপারের দায়িত্ব পালন ও অবৈধ পন্থা অবলম্বন করে ১০০℅ এমপিও গ্রহণ করছে। আইনগত ভাবে যা অবৈধ বলে মনে করেন মৈশাটেকী দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা মো. হাবিবুর রহমান।
মৈশাটেকী দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও জমিদাতা মো. হাবিবুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকট সংযুক্ত সুত্রসমূহ বিবেচনা করে সাময়িক বরখাস্তকৃত সুপার মো. শফিকুল ইসলামের অবৈধ কার্যক্রম বন্ধ করে নতুন ভারপ্রাপ্ত সুপার নিয়োগ করে শিক্ষা মন্ডলীর বেতন ভাতা ইত্যাদি প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আকুল আবেদন করছি।
এ ব্যাপারে মৈশাটেকী দাখিল মাদ্রাসার সাময়িক বরখাস্তকৃত সুপার মো. শফিকুল ইসলামের সাথে মোটোফোনে আলাপ কালে বলেন এ ব্যাপারে ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান তদন্ত করছে।

এস.এম রুবেল আকন্দ,
ত্রিশাল, ময়মনসিংহ।
০১৭৫২৮২৫৩২৩

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (ভোর ৫:৪৭)
  • ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১২ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১