আওয়ামী লীগের আদর্শের ধারক বাহক এমপি ফারুক চৌধুরী

 

সারোয়ার হোসেন,তানোর: উত্তরবঙ্গের মধ্যে আলোচিত সংসদীয় আসন রাজশাহী-১(তানোর-গোদাগাড়ী)। বর্তমানে আসনটির অভিভাবক পর পর তিন বারের সফল জনপ্রতিনিধি ও সাবেক রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী শহীদ পরিবারের সন্তান জাতীয় চার নেতার অন্যতম নেতা এএইচ এম কামারুজ্জামান হেনার সুযোগ্য ভাগ্নে ওমর ফারুক চৌধুরীর রাজনীতি আওয়ামী লীগের আদর্শে বিশ্বাসী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার হাত ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে বিচরণ করে তানোর গোদাগাড়ীসহ জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির বিপ্লব ঘটিয়েছে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী।

খুব অল্প সময়ের মধ্যে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর রাজনীতির মাঠে প্রতিফলন দেখে তাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পদ দেন। আর পরবর্তীতে ওমর ফারুক চৌধুরীর নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতির মাঠ চাঙ্গা দেখে তাকে পরপর দুইবার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শিল্প প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অথচ নির্বাচনের সময় এখনো ঢ়ের বছর খানিক বাকি থাকলেও নিজ দলের কিছু স্বার্থবাজ পদপদবী হারানো বগি নেতারা বিভিন্ন মাঠে ঘাটে এবার এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী মনোনয়ন পাচ্ছেনা বলে অপপ্রচার চালাচ্ছেন।

যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চার চারবার আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়ে এমপি মন্ত্রী বানাচ্ছেন। আর সেখানে এমপির বিরোধিতা করতে গিয়ে স্বয়ং আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে কিছু আওয়ামী লীগের ভিতরে ঘাপ্তি মেরে থাকা পদপদবী হারানো বগি জামাত বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন কারী নেতারা।

জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শরিফ খান বলেন, একসময় রাজশাহীতে বিএনপির দাপটে কোণঠাসা হয়ে ছিলো আওয়ামী লীগ। এমনকি বিএনপির বড় বড় নেতাদের ভয়ে বিড়াল হয়ে ছিলো উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। শুধু তাই না, বিএনপির আমলে রাজপথে নেমে মিছিল মিটিং সভা সমাবেশ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ কে করতে দেয়া হয়নি একসময়। আর এখন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর পরই জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীকে দায়িত্ব দেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। অথচ নিজ দলের কিছু কতিপয় কুলাঙ্গাররা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বিবাদ সৃষ্টি করতে মরিয়া হয়ে উঠে পড়ে লেগেছে।

তানোর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না বলেন, আমাদের এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী রাজনীতির মাঠে যা কিছুই করেন সবগুলো পরামর্শ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় করেন। উত্তরবঙ্গ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তার কোন বিকল্প নাই। এমপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীরা যতই ষড়যন্ত্র করছে ততই জনসাধারণের কাছে জনপ্রিয় হচ্ছে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (সকাল ১০:৩৮)
  • ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • ৮ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০