ব্যাংক লোন নিয়ে যারা ফ্ল্যাট কিনতে আগ্রহী

সচেতনতামূলক পোস্ট। ব্যাংক লোন নিয়ে যারা ফ্ল্যাট কিনতে আগ্রহী তাঁদের সুবিধার্থে আমার আজকের পোস্ট, ব্যাংকার বন্ধুরা ক্ষমা করবেন। আমি ২০১০ সালে HSBC ব্যাংক থেকে ১৫ বছর মেয়াদী ২৭,৫০,০০০/- টাকা ঋণ নিয়ে ৪৫ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলাম। চুক্তি ছিল ৯.৯৯% হারে সূদ নিবে। সেই হিসাবে মাসিক কিস্তি পরিশোধের পরিমান ছিল ২৭,৫০০/- টাকার মত। পরবর্তী এক বছরের মধ্যে সূদের হার বেড়ে গেল পর্যায়ক্রমে ১৪% পর্যন্ত এবং মাসিক কিস্তি গিয়ে ঠেকল ৩৪,০০০/- টাকায়। আমার পরিকল্পনা ছিল পাঁচ বছর পরে এক কালিন বাকী টাকা নগদ পরিশোধ করে ঋণ মুক্ত হব। যথারীতি পাঁচ বছর পরে ব্যাংকে গেলাম বকেয়ার হিসাব নিতে। ব্যাংক জানাল আমার ২৬,২৫,০০০/- টাকা বকেয়া আছে। আমি তো অবাক, এটা কিভাবে হয়, কারন আমি ইতি মধ্যে ২২ লক্ষ টাকা পরিশোধ করে ফেলেছি। কারন জিজ্ঞেস করাতে ব্যাংক বলল, “আপনার ১৫ বছরের ঋনের সূদ অগ্রিম হিসাব করে মাসিক কিস্তির সাথে ৯৫% হারে কেটে নেয়া হচ্ছে এবং গৃহ ঋণের এটাই নিয়ম”। অর্থাৎ এই পাঁচ বছরে আমার ঋণের আসল কাটা গেছে মাত্র ৫% হারে। আমার মাথার উপর আাকাশ ভেঙ্গে পড়ার মত অবস্থা। পরে নিজের বোকামি বুঝতে পেরে সিদ্ধান্ত নিলাম আর এই ফাঁদে পা দিবনা, অন্যত্র অনেক মূল্যবান প্রপার্টি বিক্রি করে ব্যাংকের বকেয়া টাকা এক কালীন পরিশোধ করলাম। অতএব বন্ধুগন, প্রয়োজনে ঋণ নিন, তবে আগে টার্মস্ কন্ডিশন গুলি ভাল করে বুঝে নিবেন। না হয় আমার মত ভুলের চরম মাশুল দিতে হবে। #ধন্যবাদ। **বর্তমানে, IDLC, DBH, সহ অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান সবার ক্ষেত্রে সুদের হার ১৪%,১৩%,১২%। সবাইকে এ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য অনুরোধ রহিল। Loan নেয়ার ক্ষেত্রে সবাই সচেতন হই,নিজে সচেতন হই, অন্যকে সচেতন করি।আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিবেন না। এ ফাঁদ থেকে কখনও বের হতে পারবেন না। জীবন শেষ হয়ে যাবে, কিন্তু ঋণ শেষ হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • রবিবার (সকাল ৮:৩২)
  • ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০