নারীদের অধিকার নিয়ে তালিবানকে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি

যমুনা নিউজ বিডিঃ আফগানিস্তানের নারীদের অধিকার খর্ব করে, এমন সব সিদ্ধান্ত তালিবান প্রত্যাহার না করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তালিবান গোষ্ঠীকে ইতোমধ্যে এই বার্তা পৌঁছে হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস। সোমবার ওয়াশিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে নেড প্রাইস বলেন, ‘আমরা তালিবানকে সরাসরি জানিয়ে দিয়েছি যে, এখনও আমাদের হাতে অনেক পন্থা রয়েছে।’

‘যদি আমাদের মনে হয়, এসব (আফগানিস্তানের নারী অধিকার খর্ব বিষয়ক) সিদ্ধান্ত তারা ফিরিয়ে নেবে না, কিংবা (পরিস্থিতি) আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে তারা কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করবে না, সেক্ষেত্রে আমাদের নিজস্ব পন্থা নিয়ে এগোতে বাধ্য হব আমরা।’ তবে কী কী সম্ভাব্য পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্র নিতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু বলেননি মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই মুখপাত্র। ২০ বছর আগে মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনীর হাতে ক্ষমতা হারানো তালিবান গোষ্ঠী ২০২১ সালের আগস্টের মাঝামাঝি পুনরায় কাবুল দখল করে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও ন্যাটো সেনাদের প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর মাত্র তিন মাসের ঝটিকা অভিযানে জাতীয় ক্ষমতা দখলে সফল হয় তালিবান। কট্টর ইসলামপন্থী এই গোষ্ঠী কাবুলে আসীন হওয়ার পর স্কুল-কলেজের ক্লাসে ছাত্র-ছাত্রীদের একসঙ্গে শিক্ষাগ্রহণ নিষিদ্ধ করে, সেই সঙ্গে বন্ধ করে দেয় করে দেওয়া হয় আফগানিস্তানের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক মেয়েস্কুলগুলো। পাশাপাশি, কোনো পুরুষ অভিভাবক ব্যতীত আফগান নারীদের ভ্রমণের ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা দেয় তালিবান।

জাতিসংঘসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ, মানবাধিকার ও মানবিক সহয়তা সংস্থা তালিবান গোষ্ঠীর এসব সিদ্ধান্তের নিন্দা ও সমালোচনা করেছে, মেয়েস্কুলগুলো খুলে দেওয়ার আহ্বানও জানিয়েছে; কিন্তু তালিবান নেতারা তাতে আমল দেননি। এর মধ্যেই গত শনিবার আফগান নারীদের জন্য বোরকা বাধ্যতামূলক ঘোষণা করে ডিক্রি জারি করেছে তালিবান সরকারের ‘পূণ্যের প্রচার ও পাপ প্রতিরোধ’ মন্ত্রণালয়। গোষ্ঠীটির সর্বোচ্চ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা স্বাক্ষরিত সেই ডিক্রিতে বলা হয়েছে, এই ডিক্রি জারির পর থেকে যদি কোনো নারী বাড়ি থেকে বোরকা ব্যতীত বের হন, সেক্ষেত্রে তার নিকটতম পুরুষ আত্মীয়/ অভিভাবকের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে নেড প্রাইস বলেন, ‘আমরা আমাদের মিত্র ও অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। তালিবান যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল—সেসব তাদেরকে বাস্তবায়ন করতে হবে, সেই সঙ্গে তাদেরকে কিছু সিদ্ধান্তও প্রত্যাহার করে নিতে হবে।’ ‘যদি তারা তাতে সম্মত না হয়, সেক্ষেত্রে তাদের ওপর চাপ বাড়ানো অব্যাহত রাখার কিছু পদক্ষেপ রয়েছে। সেসব নেব আমরা।’ সূত্র: রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • রবিবার (সকাল ৭:৫৮)
  • ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৩রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০