‘আমাকে ভোট দেবেন, দেশের এই অবস্থার পরিবর্তন করবো’

শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার মিথ্যুক, প্রতারক, ধাপ্পাবাজ ও লুটেরা আখ্যায়িত করে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ইউলুপ, ব্রিজ ও রাস্তা হচ্ছে। এসব কীভাবে হচ্ছে। আসলে ক্ষমতাসীনদের সবাই চোর। এদের ক্ষমতা থেকে সরাতে হবে। দেশের সম্মান যারা রক্ষা করতে চান তাদের বৃহত্তর ঐক্য গড়তেও আহ্বান জানান তিনি।

শনিবার (২৮ জুলাই) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবিতে এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ জনকল্যাণ পার্টি।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দিকে ইঙ্গিত করে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘আমাদের এই ঐক্যের মধ্যে এমন অনেকে আছেন যারা আগে ক্ষমতায় ছিলেন। এরা ক্রসফায়ার দিচ্ছে, তারা অপারেশন ক্লিন হার্ট দিয়েছে। এরা যেভাবে লোকজনকে ধরে নিয়ে গেছে, তারাও নিয়ে গিয়েছিল। এরা যেমন দুর্নীতি করছে, তারাও করেছিল। কিন্তু পার্থক্য হচ্ছে কেউ বেশি আর কেউ কম। তবে তাদের চরিত্র একই। তাই আমাদের ঐক্য কাউকে বদলে আবার কাউকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য নয়।’

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মান্না বলেন, ‘তাহলে কাকে ভোট দেবেন? আমাকে? কিন্তু আমার দল তো এত বড় নয়। তাই আমরা একটা যুক্তফ্রন্ট করেছি। এই জোট যদি ক্ষমতায় যায় তাহলে দেশের এই অবস্থার পরিবর্তন করবো।’

তিনি বলেন, আপনারা পাঁচ বছরে দেশের এই চেহারা পরিবর্তন করতে পারছেন না। আমাদের এক বছরের জন্য দিয়ে দেখুন কী করতে পারি। যদি দেশের এই দুর্বৃত্তদের শাস্তি দেওয়া না যায়, তাহলে তো দেশের এই অবস্থার পরিবর্তন হবে না। তাই আমরা বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তুলতে চাই। তবে এর আগে আপনাদের বলতে হবে আপনারা ক্ষমতায় গেলে দেশের এই অবস্থা হবে না।

আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপিদের সম্পদ বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে দাবি করে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘ভোটের আগে তাদের যে সম্পদ ছিল এখন তা আরও পাঁচ গুণ বা ১০ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। কোথা থেকে এই সম্পদ এসেছে? সব লুটপাট করে নিয়ে গেছে। তাই আগামীতে দেশের এই অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • রবিবার (রাত ৩:২১)
  • ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৪ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শীতকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮