নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ছাত্রলীগের বাধার মুখে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ।

 

মোঃ রাজিবুল ইসলাম বাবু স্টাফ রিপোর্টারঃ- নাটোরের বাগাতিপাড়ায় শনিবার বিকালে বিএনপির ডাকা পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশে উপজেলা আ’লীগ ও ছাত্রলীগের বাধা। তবে বাধার মুখে লক্ষনহাটী স্কুল মাঠ ও পেড়াবাড়িয়া মাদ্রাসা মাঠে পৃথক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেছেন বিএনপির দুই গ্রুপ। বিএনপি নেতা মোশাররফ হোসেন এবং বিএনপি নেতা ও মেয়র শরিফুল ইসলাম লেলিনের দাবী বিক্ষোভ সমাবেশে যোগদিতে আসা ১৪ জন নেতাকর্মী আহত ও ৩টি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়েছে। তবে আহত বা গাড়ি ভাংচুরের বিষয়ে অবগত নয় থানা পুলিশ।

জানা যায়, নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য বৃদ্ধি ও ভোলায় পুলিশের গুলিতে ছাত্র দল নেতা নুরে আলম, সেচ্ছাসেবক নেতা আব্দুর রহীম হত্যার প্রতিবাদে বাগাতিপাড়ায় শনিবার বিকাল তিনটায় পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশ ডাকে বর্তমান মেয়র লেলিন গ্রুপ এবং সাবেক মেয়র মেশাররফ গ্রুপ। তারি প্রেক্ষিতে শনিবার সকাল থেকে মালঞ্চি রেল গেট এলাকায় উপজেলা আওয়ামী লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে অবস্থান করে আ’লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠন। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিক হাসান বিদ্যুৎ ও সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মোল্লার নেতৃত্বে দফায় দফায় বিএনপির ডাকা বিক্ষোভ সমাবেশের বিরুদ্ধে মিছিল ও মোটরসাইকেল সোডাউন করেন তারা। এসময় আইনশৃংখলা পরিস্থিতি সাভাবিক রাখতে বাগাতিপাড়া থানা পুলিশ, নাটোর থেকে আসা অতিরিক্ত পুলিশ, ডিবি পুলিশের টিম এবং সদর সার্কেলসহ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটকে টহল দিতে দেখা যায়।

বাধার মুখে বিএনপির লেলিন গ্রুপ লক্ষনহাটী স্কুল মাঠে জেলা বিএনপির সদস্য গোলাম মোস্তফা নয়নের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শামীম সরকারের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সদস্য তারিকুল ইসলাম টিটু, বিশেষ অতিথি ছিলেন বাগাতিপাড়া পৌর মেয়র লেলিন প্রমুখ।
অপরদিকে মোশাররফ গ্রুপের সমাবেশে আসা নেতাকর্মীদের ছাত্রলীগের কর্মীরা ধাওয়া করে। তবে পুলিশের বাধার মুখে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। পরে পেড়াবাড়িয়া মাদ্রাসা মাঠে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব হাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির মানবাধীকার বিষয়ক সদস্য এড.ফারজানা শারমীন পুতুল, লালপুর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ইয়াছির আরশাদ রাজন।
বাগাতিপাড়া বিএনপির আহবায়ক মোশারফ হোসেন বলেন, নির্ধারিত স্থানে প্রোগ্রাম করতে না পারলেও পেড়াবাড়িয়া মাঠে সফল ভাবে সমাবেশ করেছেন তারা। সমাবেশে আসার পথে একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর ও ৮ জন নেতাকর্মীকে আহত করেছে ছাত্রলীগ কর্মীরা।

বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ও মেয়র শরিফুল ইসলাম লেলিন বলেন, আমার নির্ধারিত সমাবেশ স্থল লক্ষনহাটী বিদ্যালয় মাঠ ছিল। পুলিশের বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে সমাবেশ সফল ভাবে সম্পন্ন করেছেন। তবে তার অভিযোগ সমাবেশ স্থলে আসার পথে ২ টি মোটর সাইকেল ভাংচুর করা হয়েছে এবং ৬ জন নেতা কর্মীকে মারধর করে আহত করা হয়েছে।
তবে অভিযোগ অস্বীকার করে বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম ঠান্ডু বলেছেন, বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচিতে তাঁরা কোন বাঁধা দেননি। তবে নাশকতা ঠেকাতেই এই অবস্থান নিয়েছিলেন তাঁরা। বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিএনপির ডাকা সমাবেশে আসা নেতাকর্মীরা আহত বা গাড়ি ভাংচুরের বিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ বা অবগতকরা হয়নি তাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (রাত ১২:৩৪)
  • ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ