প্রসঙ্গঃ আমাদের রাজনীতি অর্থনীতি সমাজনীতি ও কিছু কথা

প্রসংঙ্গঃ আমাদের রাজনীতি অর্থনীতি সমাজনীতি ও কিছু কথা।
————- নজরুল বাঙালি।

পৃথিবীর অন্য সব জাতীয়তাবাদী নেতা থেকে আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অনূন্য। জাতীয়তাবাদীর নেতাদের দুটি বড় গুন হলো সমস্ত লোভ লালসা কে বাদ দিয়ে দেশ ও জাতি বর্ণ নির্বিশেষে মানুষকে ভালোবাসা আর এই অনূন্য গুনের অধিকারী ছিলেন আমাদের বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেই ছোট বেলা থেকে মা বাবার মুখে এই সাদা মনের মানুষটির জীবন কাহিনি শুনতে শুনতে কখন যে উনার আদর্শের কর্মী হয়ে গেলাম তা আজও ভুলিনি। বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবন বলি দলীয় রাজনীতি বলি শাসন ক্ষমতার কথা বলি আর অর্থনীতি বা সমাজ নীতির দিকে চোখ বুলালে দেখা যাবে ৯০% লোক ছিলো দেশ প্রেমিক শিক্ষিত নম্র ভদ্র উদার টাইপের লোক। ১৯৭৩ পরবর্তী সময় গুলোতে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ এর ছত্রছায়ায় কিছু দেশীয় মীর জাফরদের সহযোগিতায় এই দেশকে তলাবীহিন জুড়ি ও স্বাধীন সার্বভৌম জাতি কে মেরুদন্ড হীন জাতিতে পরিনত করার চেষ্টা চলছিলো সেটা আমাদের ৭৫ পরবর্তী সময়টিতে কি ঘটে ছিল তা কম বেশি সবার জানা। তবে এটা টিক যে বঙ্গবন্ধু সরকারে ও দলীয়রাজনীতিতে শোষক শ্রেণির লোক সন্ত্রাসী চাঁদবাজদের পছন্দ করতেননা বরং এদের এ কাজে নিরুৎসাহিত করতেন। তাই উনার সময় স্বচ্ছ লোকদের রাজনীতি আনাগোনা ছিলো। জনগণের কাছেও ঐ সকল নেতার কদর ছিলো সহজে সাধারণ পাবলিক যে কোন আপদ বিপদে নেতাদের দ্বারস্থ হতে পারতেন। তখন আমরা দেখেছি কোন জাতীয় নেতা বা এম এ লে এম পি মন্ত্রী কোন মফস্বল শহরে আসলে রাস্তার দুই দ্বারে দাঁড়িয়ে হাতে ছোট জাতীয় পতাকা ও দলিয় পতাকা নিয়ে তাদের প্রিয় নেতাকে অন্তর থেকে সাদর সম্ভাষণ জানাতেন। আর এখন তো টাকা দিয়েও লোক দাঁড় করা যায় না।কারন এখন আর নেতাদের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা নেই সেই রুপে নেতারা ও জনগনের প্রতি আস্থা নেই তাই শুনা যায় প্রায় সব জায়গায়তেই ওয়াড কমিটির নেতা নির্বচিত হলেই পরের দিন একটি ডিজিটাল ব্যানার টাঙ্গিয়েছ তাতে লিখা হয় আমাকে নেতা বানানোর জন্য অমুক ভাইকে ধন্যবাদ ও প্রানঢালা অভিনন্দন। নেতা নির্বাচন করে জনগন অভিনন্দন পায় অমুক ভাই। সারাদেশে সকল রাজনীতি দলে এইসব ভাইদের অভাব নেই সমস্ত দেশে সয়লাভ এসব ভাই রাজনীতি।আর এইসব ভাই রা যতবড় ক্ষমতাধর নেতা হোক তারা সাধারণ একজন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে জিম্মি কারন ওসি সাহেবরা জানেন এই সব হাইব্রিড নেতাদের আকাম কুকামের খবর।আমরা যারা অতিকাছ থেকে রাজনীতি টাকে দেখছি তারা বুজি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা টা আজ কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে।এখনি সময় দেশ উন্নত বিশ্বে যাওয়ার আগেই এইসব জঞ্জাল সরকার ও রাজনীতি থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া। আমি অর্থনীতি বুঝিনা তবে ধীরে ধীরে দেশে অর্থনীতির চাকা যে সচল হচ্ছে তা নিঃসন্দেহে বুঝা যায় কারন দেশ এখন স্বল্প উন্নত দেশ থেকে মধ্য আয়ের দেশে পৌঁছেছে। তবে এক জায়গাতেই কিছুটা প্রতিবন্ধকতা রয়েছে দেশের ব্যাংক গুলো হাজার কোটি টাকা লোন ইস্যু করছে সে ভাবে কল কারখানা হচ্ছে না বরং পাচার হচ্ছে টাকা বাড়ছে লক্ষ লক্ষ উচ্চশিক্ষিত বেকারের সংখ্যা। বিদেশি রেমিটেন্স স্বনির্ভর জিডিপি কোথায় নিয়ে যায় দেশ কে ভাব উচিত এখনি ১৬ কোটি মানুষের ৩২ কোটি হাত কে কর্মমুখী গড়ে তোলার চেষ্টা মাথায় রাখতে হবে। আমাদের ঘুনেধরা সমাজনীতি পরিবর্তন করতে হবে।গ্রামের একশ্রেণীর টাউট বাটপারেরা সরকারের যত সব অর্জন অঙ্কুরেই নষ্ট করছে। শালিস বানিজ্য চাঁদাবাজি ভূমি দখল বালুমহল দখলদারিতে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ আর এসব হচ্ছে উপরের হাইব্রিড ক্ষমতাধর নেতাদের চোখের ঈশার ইঙ্গিতে। তবে সঠিক নেতৃত্বই এইসব অপকর্মের অনেক টা সমাধান হতে পারে বলে মনে করে এ দেশের সাধারণ মানুষ। আর তবে কেবল এ দেশ কে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (বিকাল ৫:৫৯)
  • ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১