May 25, 2022, 1:11 am

News Headline :
ময়মনসিংহে ব‍্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে পরিচ্ছন্ন হলো চুড়খাই বাজার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে ফরিদগঞ্জে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল মধ্যপাড়া খনি শ্রমিক সন্তানদের শিক্ষা উপবৃত্তি প্রদান ঠাকুরগাঁওয়ে মোটর সাইকেলের ধাক্কায়  বৃদ্ধার মৃত্যু  পিরোজপুরে বেগম খালেদা জিয়াকে কটূক্তি ও কেন্দ্রিয় ছাত্রদলের সভাপতি’র উপরে মামলা নির্যাতনের প্রতিবাদে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির প্রতিবাদে সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের বিক্ষোভ  জেলা তথ্য অফিস আয়োজনে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম প্রচারণায় হাইমচরে মহিলা সমাবেশ পার্বতীপুরে ল্যাম্ব হাসপাতাল কতৃক টর্নেডো কবলিত ১০ পরিবারকে সহায়তা প্রদান  চান্দ্রায় ইউনিয়ন পরিষদে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে চাউল বিতরণ একজন কবি ও লেখকের চোখে অঞ্জনা খান মজলিস

মাত্র আধা ঘণ্টায় ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোকে ধ্বংস করতে সক্ষম রাশিয়া

যমুনা নিউজ বিডিঃ পরমাণু যুদ্ধ বাধলে ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোকে মাত্র আধা ঘণ্টার মধ্যে ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে রাশিয়া। জার্মানির নাৎসি বাহিনীর বিরুদ্ধে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের বিজয়ের ৭৭ম বার্ষিকী পালনের আগ মুহূর্তে রাশিয়ার স্পেস এজেন্সির প্রধান দিমিত্রি রোগোজিন এ হুমকি দিয়েছেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ওই বিজয়কে প্রতি বছর ‘বিজয় দিবস’ হিসেবে স্মরণ করে রাশিয়া। সোমবার (৯ মে) রাশিয়ায় এই দিবস পালিত হচ্ছে। দিবসটি পালনের আগে রোববার (৮ মে) মস্কোর রেড স্কয়ার দিয়ে রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্রবাহী বিশালকায় সামরিক যানগুলো মহড়া দিয়ে চলে যায়।

এ সময় রোগোজিন বলেন, তার দেশের লক্ষ্য ‘পশ্চিমা শত্রুদের’ পরাজিত করা এবং প্রয়োজনে ইউক্রেনসহ তাদের সবগুলোকে মানচিত্র থেকে মুছে ফেলা। রোগোজিন বলেন, ন্যাটো আমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে করছে। তারা এ কথা মুখে ঘোষণা না করলেও বিষয়টি এখন আর কারো কাছে অস্পষ্ট নয়।

রাশিয়ার এই সামরিক কর্মকর্তা বলেন, যদি পরমাণু যুদ্ধ বেধে যায় তাহলে ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো মাত্র আধাঘণ্টার ব্যবধানে ধ্বংস হয়ে যাবে। এর পরপরই তিনি সতর্ক অবস্থান ব্যক্ত করে বলেন, তবে আমাদের সেটি করা উচিত হবে না। কারণ, পারমাণবিক যুদ্ধ বেধে গেলে তা গোটা বিশ্বের ক্ষতি করবে। কাজেই আমাদেরকে প্রচলিত সমরাস্ত্রের মাধ্যমে আমাদের শত্রুদের পরাজিত করতে হবে। ইউক্রেনে রাশিয়ার চলমান সামরিক অভিযানের উদ্দেশ্য সম্পর্কে ক্রেমলিনের স্পেস এজেন্সির প্রধান বলেন, একটি স্বাধীন ও স্বতন্ত্র রাষ্ট্র হিসেবে রাশিয়ার টিকে থাকার অধিকার রয়েছে। তবে ইউক্রেন যদি রাশিয়ার কাছ থেকে দূরত্ব বজায় রেখে টিকে থাকতে চায়, তাহলে এটি নিশ্চিতভাবে পাশ্চাত্যের রুশবিরোধী আগ্রাসনের হাতিয়ারে পরিণত হবে। এ কারণেই আমরা এ বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করেছি। সূত্র: পার্সটুডে

নিউজটি শেয়ার করুন


© All rights reserved © greenbanglanews.com
Design, Developed & Hosted BY ALL IT BD