নওগাঁয় চাকুরী দেওয়া প্রতারক চক্রের দুই সদস্য আটকের ঘটনায় পুলিশের  সংবাদ সম্মেলন

অন্তর আহমেদ নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ নওগাঁয় চাকুরী দেওয়া প্রতারক চক্রের দুই সদস্য আটকের ঘটনায় পুলিশের  সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  আজ বুধবার বৈকাল সাড়ে ৪টার সময় পুলিশ সুপারের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলন করেন জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানান, নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলায়  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  শিক্ষিক পদে চাকরি দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়া প্রতারক চক্রের দুই সক্রিয় সদস্যকে আটক করে পুলিশ।
তিনি বলেন, বুধবার (১লা জুন) বেলা ১২ টার দিকে সতিহাট এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো, মান্দা উপজেলার গনেশপুর ইউ’পির সাতবাড়িয়া গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিন এর ছেলে ফজলুল হক, ও মৈনম ইউ’পি দুর্গাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে এনামুল হক।
সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়া বিপিএম জানান, মান্দা উপজেলার ভারশোঁ ইউ’পির কসবা মান্দা গ্রামের আব্দুল হামিদের মেয়ে মুক্তা খাতুনকে (৩২) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে তার প্রতিবেশী এক প্রতারক খোরশেদ আলম ১৮লক্ষ দাবি করেন। সে বলে সাতবাড়িয়া বিএম কলেজের কম্পিউটার এ্যাসিষ্ট্যান্ট পদে চাকুরী করে মোঃ ফজলুল হককে টাকা দিলে তোমার চাকরী হবেই হবে। তার সাথে বড় বড় কর্মকর্তাদের ভালো সম্পর্ক আছে। এক সময় ফজলুল এর সাথে পরিচয়ও করিয়ে দেয় খোরশেদ এবং চাকরী দেওয়ার সম্পূর্ণ কথা ফাইনাল করে। এর কিছুদিন পর থেকে প্রতারক চক্রে সদস্যরা অগ্রীম ৩ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে।
এতে মুক্তা খাতুনের সন্দেহ হলে তিনি সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মতিয়ার রহমান এর সরণাপন্ন হলে তিনি নওগাঁ পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া বিপিএম এর আলোচনা ও দিক নির্দেশনায় মান্দা থানার অফিসার মোঃ শাহিনুর রহমান এর নেতৃত্বে ও সক্রিয় ফোর্স নিয়ে সাদা পোশাকে সতীহাট জাহাঙ্গীর মার্কেটে প্রতারক চক্রের জুতার দোকানে ৩লক্ষ টাকা সহ দুই প্রতারক চক্রের সদস্যকে হাতেনাতে আটক করতে সক্ষম হয়।
পুলিশ সুপার বলেন,ঘুষ,দুর্নীতি এবং এসব প্রতারক চক্রের কাছ থেকে নওগাঁবাসী সহ সকলেই যেন সতর্ক থাকেন কারণ এরা কখনো চাকুরী দিতে পারে না শুধু টাকা হাতিয়ে নিতে পারে। বর্তমানে ঘুষ, দুর্নীতি জিরো ট্রলারেন্সে নিতে তিনি সকলকে সচেতন হওয়ার আহব্বান করেন।
পুলিশ সুপার বলেন, প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদে প্রতারনার দায় তারা স্বীকার করেছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় একটি প্রতারণার মামলাও হয়েছে বলে তিনি জানান।
এসময়  উক্ত সংবাদ সম্মেলনে, উপস্থিত ছিলেন, সহকারী পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মোঃ মামুন খান চিশতি, ডিবি ওসি কে এম শামছুদ্দীন, মান্দার ওসি মোঃ শাহিনুর রহমান ও ডিএসবি পুলিশসহ সাংবাদিক বৃন্দরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • সোমবার (রাত ২:২৬)
  • ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৫ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি
  • ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শীতকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮