পূত্রবধুকে অ্যাসিড নিক্ষেপ: শ্বশুর-শ্বাশুরী গ্রেফতার

শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত,
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় পুত্রবধুকে অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগে শ্বশুর-শ্বাশুরীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) সকালে তাদের জেল হাজতে প্রেরন করে হাতীবান্ধা থানা পুলিশ। এর আগে গত সোমবার ভোরে জামালপুর জেলা পুলিশের সহায়তায় জেলা শহর থেকে শ্বশুর আতোয়ার রহমান ও শ্বাশুরী হামিদা বেগমকে  গ্রেফতার করে পুলিশ। গত ১৩ জুলাই অ্যাসিড নিক্ষেপের শিকার হয় হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের গেন্দুকুড়ি গ্রামের হামিদুল ইসলামরে স্ত্রী মাহমুদা বেগম।

 
পুলিশ ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিয়ের পর থেকেই মাহমুদা বেগমকে কারনে অকারনে নির্যাতন করেন শ্বশুর আতোয়ার রহমান ও শ্বাশুরী হামিদা বেগমসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। গত ১৩ জুলাই সন্ধ্যার পর মাহমুদা বেগমের শ্বশুর-শ্বাশুরী ও ননদসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার গায়ে অ্যাসিড ঢেলে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান। ওই ঘটনায় গৃহবধু মাহমুদা বেগমের বাবা আব্দুল মালেক বাদি হয়ে হাতীবান্ধা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরপরেই মাহমুদা বেগমের শ্বশুর-শ্বাশুরীসহ অন্যান্য আসামীরা গা ঢাকা দেয়।
 
হাতীবান্ধা থানার উপ-পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আঙ্গুর মিয়া বলেন, আমাদের কাছে খবর ছিল আতোয়ার রহমান জামালপুরে রিক্সা চালিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেছে। জামালপুর জেলা পুলিশের সহায়তায় জেলা শহরে রিক্সা চালা অবস্থায় আতোয়ার রহমানকে আটক করা হয়। পরে তার বাসায় গিয়ে তার স্ত্রী হামিদা বেগমকেও আটক করা হয়।
 

হাতীবান্ধা থানার ওসি শাহা আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক আসামীদের জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (রাত ১২:৫৮)
  • ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • ৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
পুরানো সংবাদ