কক্সবাজারের কলাতলী বাদশা ঘোনায় কবিরের নেতৃত্বে পাহাড় কেটে স্হাপনা নির্মাণ

 

আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি :
চলছে দখল ও পাহাড় কাটা মহোৎসব। ফলে বেদখল হচ্ছে সরকারি জমি ও সাবাড় হচ্ছে সরকারি পাহাড়। দিনে দুপুরে উঁচু পাহাড় কেটে চলছে এসব অবৈধ স্থাপনার কাজ। কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের পুলিশ লাইসেন্স এর পিছনে কলাতলী বাদশা ঘোনায় সরকারি মুল্যবান খাস জমি দখল করে উঁচ পাহাড় কেটে স্হাপনা নির্মাণ করছে মহেশখালী শাপলাপুর নতুন বাজার এলাকার আরফা স্বামী মোহাম্মদ করিম। সে জায়গাটি ঘোনার পাড়া কবিরের কাছ থেকে ক্রয় করেছে বলে জানান।।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,কক্সবাজারের মহেশখালীর শাপলাপুর নতুন বাজার এলাকার মোহাম্মদ করিম ও তার স্ত্রী আরফা বেগম এর নেতৃত্বে এই পাহাড় নিধন ও স্হাপনা নির্মাণের কর্মযজ্ঞ চলছে।তাদেরকে প্রত্যক্ষভাবে সহযোগীতা করছে স্হানীয় কবির নামের এক ব্যক্তি।কবিরের উপস্হিতিতে মোহাম্মদ করিম ও তার স্ত্রী আরফা প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বিশাল আকারে পাহাড় কেটে সরকারি খাসজমি দখল করে স্হাপনা নির্মাণ অব্যাহত রেখেছে।

অভিযোগ উঠেছে, কবিরের ভাই সবুজ নাকি ক্ষমতাসীন দলের কক্সবাজারের বড় এক নেতার সাথে চলাফেরা করে।তাই সবুজ এর প্রভাব কাটিয়ে আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সরকারি জমি বিক্রি ও প্রকাশ্যে শত ফুট উঁচু পাহাড় সাবাড় করে পরিবেশ ধ্বংস করে সরকারি জমিতে স্হাপনা নির্মাণে সহযোগীতা করে যাচ্ছে। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন বা পরিবেশ অধিদপ্তরকে তোয়াক্কা না করে সরকারি জমি বিক্রি ও পাহাড় কাটতে প্রত্যক্ষভাবে সহযোগীতা করছে।

স্থানীয় সচেতন মহলের দাবি, এভাবে সরকারি খাস জমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ হতে থাকলে অচিরেই প্রাকৃতিক সৌন্দর্য পাহাড় তো ধ্বংস হবেই সে সাথে প্রকৃতি হারাবে তার নিজস্ব সৌন্দর্য। তাই দ্রুত এসব অবৈধ স্থাপনা, পাহাড় কাটা বন্ধ ও খাস জমি বেদখল করতে জনপ্রতিনিধি সহ প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।

অভিযুক্ত কবিরের কাছে সরাসরি জানতে চাইলে তিনি বলেন,এই জমি আমি বিক্রি করছি সমস্যা কোথায়?আপনারা ইচ্ছামত পত্রিকায় নিউজ করেন,তাতে আমার কিছু হবেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আজকের দিন-তারিখ
  • শনিবার (রাত ৩:২৬)
  • ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  • ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
পুরানো সংবাদ
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১